স্টোকসের অধিনায়কত্বের সমালোচনায় বিসিসিআই সভাপতি

ভারতে এবার এক ম্যাচ বাকি থাকতেই টেস্ট সিরিজে হার নিশ্চিত হয়ে গেছে ইংল্যান্ডের।
Ben Stokes

হায়দরাবাদে সিরিজের প্রথম টেস্টে দারুণ জয়ে শুরু করে ইংল্যান্ড। তাতে মনে হয়েছিল ব্যাজবলের আগ্রাসনে এবার হয়তো ভারত থেকে ভালো ফলাফল নিয়েই ফিরবে তারা। কিন্তু এরপর বাকি সব টেস্টে সে অর্থে জমিয়ে লড়াইও করতে পারেনি দলটি। অধিনায়ক বেন স্টোকসের এই ব্যাজবলই ইংলিশদের পিছিয়ে দিয়েছে বলে মনে করেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআইয়ের সভাপতি রজার বিনি।

চলতি ভারত বনাম ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজের ফল এরমধ্যেই নির্ধারিত হয়ে গিয়েছে। ধর্মশালায় পঞ্চম টেস্টের আগেই ৩-১ ফলে লিড নিয়ে সিরিজ নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকরা। শেষে ম্যাচে হারলেও তেমন ক্ষতি নেই স্বাগতিকদের। তবে ধর্মশালায় প্রথম দিনেই ইংলিশদের বেশ চাপে ফেলে দিয়েছে ভারত। নাটকীয় কিছু না হলে ৪-১ ব্যবধানেই হারতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড।

ভারতীয় সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিসিসিআই সভাপতি বলেন, 'সত্যি বলতে কি, বেন স্টোকসের অধিনায়কত্ব ছিল অতিরিক্ত আক্রমণাত্মক। আমার মনে হয় ঠিক এই কারণেই ইংল্যান্ডের পতন ঘটেছে এই কয়েকটা টেস্টে। এত আগ্রাসী হয়ে ভারতের মাটিতে ভারতীয় স্পিনারদের বিরুদ্ধে খেলা কঠিন। এই ধরনের উইকেটে মাটি কামড়ে পড়ে থাকলেই বড় রান করা যায়।'

কোচ ব্রান্ডন ম্যাককালাম ও অধিনায়ক বেন স্টোকসের অধীনে ব্যাজবল শুরু করার পর ভালো চলছিল ইংল্যান্ডের। তবে এই প্রথম কোনো সিরিজ হারল ইংল্যান্ড। ভারতের স্পিন সহায়ক উইকেটে এই তত্ত্ব কাজে লাগেনি। তবে তারপরও নিজেদের স্ট্রাটেজি থেকে স্বরে আসেনি ইংল্যান্ড। পুরো সিরিজেই একই ধারায় খেলেছে দলটি।

ইংলিশদের পতনের জন্য স্টোকসের অধিনায়কত্বকে দায় দিয়ে বিনি বলেন, 'রোহিত শর্মা এই সিরিজে অধিনায়ক হিসেবে খুব ট্যাকটিক্যাল ছিল। আমি দেখেছি ও এটা বুঝাতে পেরেছে যে কার কাছ থেকে ও ঠিক কি চায়। আর ও কিন্তু ওর বোলারদের দিয়ে ঠিক সেই কাজটাই করিয়ে নিয়েছে। আর অন্যদিকে মনে হয় না ইংল্যান্ড তাদের স্ট্র্যাটেজিতে একটুও বদল এনেছে।'

'একইভাবে আক্রমণাত্মক খেলা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছে তারা। প্রথম টেস্টে ওরা যেমন আক্রমণাত্মক খেলেছে, সেইরকম খেলাই চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছে। আর সেইখানে দাঁড়িয়ে রোহিত শর্মা কিন্তু অনেক বেশি ধৈর্যশীল ছিল। ও পরিবেশ পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলেছে। প্রথম টেস্ট বাদ দিলে পরের টেস্টগুলোতে ও অনেক বেশি ধৈর্য দেখিয়েছে এবং জিতেছে,' যোগ করেন বিসিসিআই সভাপতি।

ধর্মশালাতেও এই একই কারণে ইংলিশরা পিছিয়ে পড়েছে বলে জানান বিনি, 'ধর্মশালাতে যে পরিস্থিতিতে পড়েছে ইংল্যান্ড তার জন্য ওদের নিজেদেরকেই দোষ দেওয়া উচিত। সকালে কিন্তু ওরা শুরুটা ভালো করেছিল। আমার মনে হয়েছিল ওরা অনেক বেশি লড়াকু স্কোর করবে। তবে দিনটা ভারতের ছিল। ভারত ভালো ব্যাটিংও করেছে। এই সিরিজে যতটা লড়াই হবে সবাই আশা করেছিল তা হয়নি। বেশ একপেশে লড়াই হয়েছে সিরিজে।'

Comments

The Daily Star  | English

NBR suspends Abdul Monem Group's import, export

It also instructs banks to freeze the Group's bank accounts

1h ago