অঘটনের পর পাওয়ার প্লের ব্যাটিং-বোলিংকে দায়ী করলেন বাবর

এই হারে শিরোপাপ্রত্যাশী দলটির গ্রুপ পর্বের বাধা পাড়ি দেওয়ার পথ বেশ কঠিন হয়ে গেছে ।
ছবি: এএফপি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসরে প্রথম অঘটনের শিকার হলো শিরোপাপ্রত্যাশী পাকিস্তান। প্রথমবারের মতো কোনো সংস্করণের বিশ্ব আসরে খেলতে আসা যুক্তরাষ্ট্রের কাছে হার মানল তারা। অপ্রত্যাশিত ফলের পর দলটির অধিনায়ক বাবর আজম দায়ী করলেন নিজেদের প্রথম ছয় ওভারের ব্যাটিং-বোলিংকে।

বৃহস্পতিবার ডালাসে সুপার ওভারে গড়ানো 'এ' গ্রুপের রোমাঞ্চকর ম্যাচে বিশাল চমক উপহার দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মূল লড়াইয়ে দুই দলই ১৫৯ রান করার পর সুপার ওভারে স্বাগতিকরা ১৮ রান তুললেও শক্তি-অভিজ্ঞতায় অনেক এগিয়ে থাকা পাকিস্তান আটকে যায় ১৩ রানে। এই হারে তাদের গ্রুপ পর্বের বাধা পাড়ি দেওয়ার পথ বেশ কঠিন হয়ে গেছে ।

ম্যাচশেষে নিজেদের শুরুর ব্যাটিংকে দোষারোপ করেছেন বাবর, 'প্রথম ছয় ওভারে ব্যাটিংয়ে আমরা সুযোগ নিতে পারিনি। পরপর উইকেট পড়ে গেলে আপনি অবশ্যই পেছনে ঝুঁকে পড়বেন। একজন ব্যাটার হিসেবে আপনাকে এগিয়ে আসতে হবে এবং জুটি গড়তে হবে।'

গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে পাওয়ার প্লেতে স্রেফ ৩০ রান তুলতে পারে পাকিস্তান। ততক্ষণে তারা হারিয়ে ফেলে ৩ উইকেট। বাবর সেসময় ১৪ বল খেলে অপরাজিত ছিলেন ৪ রানে। এরপর বল হাতে প্রথম ছয় ওভারে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরতে ব্যর্থ হয় পাকিস্তান। ১ উইকেট খুইয়ে যুক্তরাষ্ট্র স্কোরবোর্ডে জমা করে ফেলে ৪৪ রান।

শুরুর দিকের বোলিংকেও কাঠগড়ায় তুলেছেন তারকা ডানহাতি ব্যাটার বাবর, 'বল হাতে প্রথম ছয় ওভারে আমরা কাঙ্ক্ষিত মানের ছিলাম না। মাঝের ওভারগুলোতে আমাদের স্পিনাররাও পারেনি উইকেট আদায় করে নিতে। তো এটা আমাদের ক্ষতি করেছে।'

মূল ম্যাচে লক্ষ্য তাড়ায় দারুণ ব্যাটিং উপহার দেয় যুক্তরাষ্ট্র। অধিনায়ক মোনাঙ্ক প্যাটেল, আন্দ্রিয়েস গাউস ও অ্যারন জোন্স খেলেন কার্যকর ইনিংস। তারপরও তাদের হারের শঙ্কায় ফেলে দিয়েছিল পাকিস্তান। শেষ ২ ওভারে যুক্তরাষ্ট্রের দরকার দাঁড়ায় ২১ রান। ১৯তম ওভারে মোহাম্মদ আমির মাত্র ৬ রান দিলেও শেষ ওভারে হারিস রউফ খরচ করেন ১৪ রান।

গ্রুপ পর্বে পাকিস্তানের পরের তিন ম্যাচ যথাক্রমে ভারত, কানাডা ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। এমন অবস্থায় সামনে বন্ধুর পথ দেখছেন পাকিস্তানের দলনেতা, 'আমরা শেষদিকে ঘুরে দাঁড়িয়েছিলাম। কিন্তু ভালোভাবে শেষ করতে পারিনি। ভবিষ্যতে ভালো করার চেষ্টা করব। এই ফলের কারণে পরিস্থিতি কঠিন হয়ে গেল।'

প্রথমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়ে প্রথম দুই ম্যাচেই জিতেছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে ঘরের মাঠে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশকে ২-১ ব্যবধানে হারায় তারা। টেস্ট খেলুড়ে কোনো দেশের বিপক্ষে তাদের প্রথম সিরিজ জয় ছিল সেটা।

নিজেদের পারফরম্যান্সে খামতি দেখলেও প্রতিপক্ষকে প্রাপ্য কৃতিত্ব দিয়েছেন বাবর, 'যুক্তরাষ্ট্রকে সব ধরনের কৃতিত্ব দিতে হবে। তিন বিভাগেই তারা আমাদের চেয়ে ভালো খেলেছে। সেকারণেই তারা জিতেছে।'

Comments

The Daily Star  | English
Bridges Minister Obaidul Quader

Motorcycles, easy bikes major causes of accidents: Quader

Road Transport and Bridges Minister Obaidul Quader today said motorcycles and easy bikes are causing the highest number of road accidents across the country

2h ago