ফুটবল

'মেসি যতো উপভোগ করে, আমরাও ততো উপভোগ করি'

জাতীয় দলের চেয়ে ক্লাব ফুটবলকে প্রাধান্য দেওয়ার বদনাম ছিল লিওনেল মেসির। সমালোচকরা প্রায়শই এ কথা বলে থাকতেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বদলে গেছে অনেক কিছুই। জাতীয় দলে যেন দূর্বার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। ঠিক আগের ম্যাচে এস্তোনিয়াকে একাই বিধ্বস্ত করেছিলেন। এদিনও তার নৈপুণ্যে পাত্তাই পায়নি হন্ডুরাস। নিজের চেনা ফুটবল ভালোই উপভোগ করছেন রেকর্ড সাত বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা। তাতে উপভোগ করার দারুণ সুযোগ পাচ্ছে পুরো ফুটবল বিশ্ব। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই বললেন আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্কালোনি।
ফাইল ছবি

জাতীয় দলের চেয়ে ক্লাব ফুটবলকে প্রাধান্য দেওয়ার বদনাম ছিল লিওনেল মেসির। সমালোচকরা প্রায়শই এ কথা বলে থাকতেন। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে বদলে গেছে অনেক কিছুই। জাতীয় দলে যেন দূর্বার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। ঠিক আগের ম্যাচে এস্তোনিয়াকে একাই বিধ্বস্ত করেছিলেন। এদিনও তার নৈপুণ্যে পাত্তাই পায়নি হন্ডুরাস। নিজের চেনা ফুটবল ভালোই উপভোগ করছেন রেকর্ড সাত বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা। তাতে উপভোগ করার দারুণ সুযোগ পাচ্ছে পুরো ফুটবল বিশ্ব। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই বললেন আর্জেন্টাইন কোচ লিওনেল স্কালোনি।

মায়ামির হার্ড রক স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় শনিবার সকালে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে হন্ডুরাসকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। এদিন জোড়া গোল পেয়েছেন মেসি। লাউতারো মার্তিনেজের করা অপর গোলটিতেও রয়েছে দারুণ অবদান। সবশেষ দুই ম্যাচে গোল করেছেন সাতটি। আর মেসির অসাধারণ পারফরম্যান্সে উড়ছে আর্জেন্টিনা। রেকর্ড ৩৪ ম্যাচ অপরাজিত স্কালোনির দল।

ম্যাচ শেষে তাই শিষ্যের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় মাতেন আর্জেন্টাইন কোচ, 'গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ও ভালো আছে এবং স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছে। ফুটবলটা ও উপভোগ করছে। ও যদি এটা উপভোগ না করতো... খুব খারাপ হতো। আমি মনে করি ও দলের নিজের খেলাটা উপভোগ করছে। এটা খুবই জরুরি। সবাই ওকে মাঠে দেখে আনন্দ পায়। ও যতো বেশি উপভোগ করে, আমরা সবাই ততো বেশি উপভোগ করি। আমি ওকে ভালো দেখছি, খুশি দেখছি। আশা করি এভাবেই চলবে।'

তবে এদিন পুরো ম্যাচে ছায়ার মতো তার পেছনে লেগে ছিলেন হন্ডুরাস ডিফেন্ডাররা। বিশেষ করে হেক্তর কাস্তেলানোস পুরোটা সময় তাকে আটকানোর চেষ্টা করেছিলেন। একবার তো খুব মারাত্মক ট্যাকলও করেন। তাতে বড় ধরণের ইনজুরিতে পড়তেও পারতেন মেসি। পুরো ম্যাচে এমন ঘটনা হয়েছে একাধিকবার। এ নিয়ে দুই দলের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। প্রীতি ম্যাচেও প্রায় হাতাহাতি হয়েছে একবার।

তবে মেসিকে এমন মার্কিংয়ে রাখার পরও দলের পারফরম্যান্সে দারুণ মুগ্ধ আর্জেন্টাইন কোচ, 'ওকে (মেসি) ব্যক্তিগত মার্ক করা হয়েছে। পুরো ৯০ শতাংশ সময় তারা ওকে ব্যক্তিগতভাবে মার্ক করেছে। হ্যাঁ, সে (হেক্তর কাস্তেলানোস) সর্বত্র ওকে অনুসরণ করেছিলেন। তবে আমরা এতে অভ্যস্ত। আমাদের একাধিক খেলোয়াড় রয়েছে। আমরা এ নিয়ে কাজ করি। এ নিয়ে আমরা অনুশীলন করি। ম্যাচে কী উপস্থাপন করছে তার উপর ভিত্তিতে আমরা এটি দেখি। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল যে কেউ মাঠে প্রবেশ করে দেখায় যে, সে সেখানে থাকার যোগ্য এবং কাজগুলো কঠিন করে তোলে।'

এদিন ম্যাচে প্রায় এক চেটিয়া প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেছে আর্জেন্টিনা। দারুণ সব আক্রমণ করে দলটি। সব মিলিয়ে সবার জন্য উপভোগ্য একটি ম্যাচ বলে মনে করেন স্কালোনি, 'খেলোয়াড় এবং ভক্তরা সবাই উপভোগ করছে। এটা এমনই একটি ম্যাচ। অনেক সময় দারুণ খেলেও সে দল জেতে না। বিশ্বকাপে এটা হতেই পারে। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল কীভাবে খেলছে। আমরা কীভাবে খেলতে যাচ্ছি সে সম্পর্কে আমরা পরিষ্কার। তারপর যা হবার তাই হবে। জাতীয় দলের খেলা মানুষ ম্যাচ উপভোগ করে।'

Comments

The Daily Star  | English