হাঙ্গেরিকে টপকে নেশন্স লিগের সেমিফাইনালে সেই ইতালি

জার্মানি, ইংল্যান্ড ও হাঙ্গেরির সঙ্গে কঠিন গ্রুপে পড়লেও বাধা উতরে গেল রবার্তো মানচিনির শিষ্যরা।
ছবি: টুইটার

রাশিয়া বিশ্বকাপের টিকিট না পাওয়া ইতালি ২০২০ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতেছিল। কিন্তু পারফরম্যান্সের হঠাৎ ছন্দপতনে কাতার বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্ব জায়গা করে নিতে ব্যর্থ হয় তারা। উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে যাওয়া দলটি এবার উঠল উয়েফা নেশন্স লিগের সেমিফাইনালে। জার্মানি, ইংল্যান্ড ও হাঙ্গেরির সঙ্গে কঠিন গ্রুপে পড়লেও বাধা উতরে গেল রবার্তো মানচিনির শিষ্যরা।

আসরের শেষ চার নিশ্চিত করতে চমক জাগানিয়া হাঙ্গেরির সামনে ছিল সুবিধাজনক সমীকরণ। ঘরের মাঠে বুদাপেস্টের পুসকাস অ্যারেনায় ড্র হলেই চলত তাদের। কিন্তু সোমবার রাতে ২-০ গোলে তারা পরাস্ত হয় জয়ের বিকল্প না থাকা ইতালির কাছে। আজ্জুরিদের পক্ষে প্রথমার্ধে জিয়াকোমো রাসপাদোরি ও দ্বিতীয়ার্ধে ফেদেরিকো দিমারকো খুঁজে নেন জালের ঠিকানা।

সেমিফাইনালে ওঠার পথে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জার্মানির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে ইতালি। পরের ম্যাচে ঘরের মাঠে হাঙ্গেরিকে ২-১ গোলে হারায় ইউরোর শিরোপাধারীরা। ইংল্যান্ডের সঙ্গে তৃতীয় ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করে দলটি। জার্মানির কাছে পরের ম্যাচে ৫-২ গোলের বড় হারে নেশন্স লিগের গ্রুপ পর্বের বাধা পেরোনো নিয়ে শঙ্কা জাগে ইতালির। তবে শেষ দুই ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়ে ইংল্যান্ড ও হাঙ্গেরিকে হারিয়ে নজর কাড়ল চারবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

ছয় ম্যাচে তিন জয় ও দুই ড্রয়ে ১১ পয়েন্ট নিয়ে 'এ' লিগের তিন নম্বর গ্রুপের সেরা হলো ইতালি। স্বপ্ন ভাঙার তেতো স্বাদ নিয়ে দুইয়ে থাকা হাঙ্গেরি সমান ম্যাচে পয়েন্ট ১০ পেয়েছে। গ্রুপের আরেক ম্যাচে ইংল্যান্ড ও জার্মানির রোমাঞ্চকর লড়াই শেষ হয়েছে ৩-৩ গোলে। ৭ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে অবস্থান জার্মানির। আগেই আসরের দ্বিতীয় স্তরে নেমে যাওয়া ইংল্যান্ডের নামের পাশে মাত্র ৩ পয়েন্ট।

একের পর এক দুর্দান্ত নৈপুণ্য উপহার দেওয়া হাঙ্গেরি শেষ ধাপে এসে পা হড়কায়। বল দখল, গোলমুখে শট নেওয়া ও শট লক্ষ্যে রাখায় তারা ছিল এগিয়ে। কিন্তু তাদের ফরোয়ার্ডরা কাজে লাগাতে পারেনি সুযোগ, হতাশ করে রক্ষণভাগও। অন্যদিকে, বেশ কিছু দারুণ সেভ করে ইতালির জাল অক্ষত রাখেন গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি দোন্নারুমা।

পরিসংখ্যানে পিছিয়ে থাকলেও জমজমাট লড়াইয়ে আক্রমণে প্রাধান্য ছিল ইতালির। ম্যাচের ২৭তম মিনিটে স্বাগতিকদের ভুলের সুযোগ নিয়ে এগিয়ে যায় তারা। চাপের মুখে গোলরক্ষক পিতার গুলাসি ঠিকমতো বল ক্লিয়ার করতে পারেননি। রাসপাদোরি তা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ফাঁকা জাল কাঁপান। ৫২তম মিনিটে ইতালিয়ানদের হয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন দিমারকো। ডি-বক্সের ডানদিক থেকে ব্রায়ান ক্রিস্তান্তের পাসে ফাঁকা জালে বল পাঠান তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Hefty power bill to weigh on consumers

The government has decided to increase electricity prices by Tk 0.34 and Tk 0.70 a unit from March, which according to experts will have a domino effect on the prices of essentials ahead of Ramadan.

10h ago