'এখন মুখ বন্ধ রাখার সময়'

সুবর্ণ কিছু সুযোগ নষ্ট হলো। বাঁধা হয়ে দাঁড়ালো বারপোস্টও। তাতে শেষ পর্যন্ত ফরাসি কাপ থেকে বিদায় নিতে হলো পিএসজিকে। এমন হারের পর কোনো অজুহাত খুঁজতে রাজী নন দলীয় অধিনায়ক মার্কুইনহোস। এখন মুখ বন্ধ রাখাই ভালো বলে মনে করেন এ ব্রাজিলিয়ান।

সুবর্ণ কিছু সুযোগ নষ্ট হলো। বাঁধা হয়ে দাঁড়ালো বারপোস্টও। তাতে শেষ পর্যন্ত ফরাসি কাপ থেকে বিদায় নিতে হলো পিএসজিকে। এমন হারের পর কোনো অজুহাত খুঁজতে রাজী নন দলীয় অধিনায়ক মার্কুইনহোস। এখন মুখ বন্ধ রাখাই ভালো বলে মনে করেন এ ব্রাজিলিয়ান।

বুধবার রাতে পার্ক দি প্রিন্সেসে ফরাসি কাপের শেষ ষোলোর ম্যাচে মার্সেইর কাছে ২-১ গোলের ব্যবধানে হেরেছে পিএসজি। মার্সেইর হয়ে একটি করে গোল পেয়েছেন আলেক্সিস সানচেজ ও রুসলান মালিনোভস্কি। পিএসজির হয়ে একমাত্র গোলটি করেন সের্জিও রামোস।

তবে পরিসংখ্যানের বিচারে এদিন মার্সেইর চেয়ে ঢের পিছিয়ে ছিল। অপেক্ষাকৃত সহজ সুযোগ বেশি প্যারিসের ক্লাবটি তৈরি করলেও বেশি তৈরি করে মার্সেই। মোট ১৬টি শট নেয় তারা, যার ৮টি ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে ৮টি শট নিয়ে ৩টি লক্ষ্যে রাখতে পারে পিএসজি।

ম্যাচ শেষে তাই নিজেদের ব্যর্থতাকে মেনে নিয়েছেন মার্কুইনহোস, 'আমরা জানতাম যে তারা অনেক চাপ দেবে। আমরা দ্রুততার সঙ্গে তাদের লাইনগুলো এড়িয়ে যেতে পারিনি। আমরা কিছু ভুল করেছি যার জন্য আমাদের মূল্য দিতে হয়েছে। আমরা জানি কি উন্নতি করতে হবে।'

'এটা এমন একটা হার যা ভীষণ কষ্ট দেয় কারণ এটা কাপের ম্যাচ। আমরা জয় ও পরের পর্বে উঠে প্যারিসে ফিরতে চেয়েছিলাম। আমাদের আরও ভালো করতে হবে, কাজ চালিয়ে যেতে হবে এবং এগিয়ে যেতে হবে। আমরা সবকিছু মিস করেছি। এখন আমাদের মুখ বন্ধ রাখার সময়,' যোগ করেন পিএসজি অধিনায়ক।

নিজেদের ব্যর্থতা মেনে নিয়েছেন পিএসজি কোচ ক্রিস্তফ গালতিয়েরও, 'দ্বিতীয়ার্ধে আমরা পরিস্থিতি তৈরি করতে পারিনি। দুই অর্ধের তুলনায় মার্সেই খুব বড় চাপ তইরি করেছিল। আমরা কিছু সময়ে বেরিয়ে আসতে পেরেছিলাম, কিন্তু আমরা বেশি জায়গা ব্যবহার করে খেলতে পারিনি। বিরতির পর একটি স্টুপিড গোল হজম করি এবং সেই মুহূর্ত থেকে আমরা অনেক ভুল করেছি। হতাশা আছে, কিন্তু আমাদের সামনের দিকে তাকাতে হবে।'

Comments

The Daily Star  | English

Bangladesh, Qatar to sign 6 deals, 5 MoUs during Qatar emir’s visit

Bangladesh and Qatar will sign 11 cooperation documents -- six agreements and five MoUs -- as Dhaka is ready to welcome Qatar's Emir Sheikh Tamim bin Hamad Al Thani tomorrow afternoon

15m ago