রোনালদো-সাঞ্চোদের যেভাবে শাসন করেছেন টেন হাগ জানালেন ব্রুনো

এরিক টেন হাগের অধীনে আমূল বদলে যেতে শুরু করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ছয় বছর পর শিরোপা জয়ের সম্ভাবনাও সৃষ্টি হয়েছে দারুণভাবে। ইংলিশ লিগেও লড়াইয়ে আছে দলটি। আর এ সবই সম্ভব হয়েছে টেন হাগ শৃঙ্খলা ও নিয়মানুবর্তিতায় অনড় থেকে। দুলের বড় বড় তারকাদেরও বিন্দু মাত্র ছাড় দেননি এ কোচ।

এরিক টেন হাগের অধীনে আমূল বদলে যেতে শুরু করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ছয় বছর পর শিরোপা জয়ের সম্ভাবনাও সৃষ্টি হয়েছে দারুণভাবে। ইংলিশ লিগেও লড়াইয়ে আছে দলটি। আর এ সবই সম্ভব হয়েছে টেন হাগ শৃঙ্খলা ও নিয়মানুবর্তিতায় অনড় থেকে। দুলের বড় বড় তারকাদেরও বিন্দু মাত্র ছাড় দেননি এ কোচ।

প্রাক মৌসুমেই দলের সঙ্গে না থাকার খেসারৎটাই বেশ বড় করে দিতে হয়েছিল ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে। ম্যাচের শেষ দিকে নামতে চাওয়া, ম্যাচ শেষ হওয়ার আগে স্টেডিয়ামে ত্যাগ করার জন্যও তাকে দেওয়া হয়েছিল কড়া শাস্তি। রোনালদোর মতো জাডন সাঞ্চো, মার্কাস র‍্যাশফোর্ডরাও শাস্তি এড়াতে পারেননি।

গত গ্রীষ্মে দায়িত্ব নেওয়ার পরই ইউনাইটেডের মাঠের বাইরের পদ্ধতির পুনর্গঠন শুরু করেন টেন হাগ। নিজের আইন তৈরি করেন ক্লাবে। খেলোয়াড়দের পোশাক কোড, নির্দিষ্ট সময়ে খাওয়ার পাশাপাশি দূরে ভ্রমণে থাকাকালীন মোবাইল ফোন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞাও জারি করেন। তার কড়া নিয়ম মানতে না পেরে ক্লাব ছাড়তে হয়েছে রোনালদোকে।

তবে কোচের কঠোর অবস্থান শুরুতে স্কোয়াডের জন্য একটি ধাক্কার মতো এসেছিল বলে জানান ব্রুনো ফার্নান্দেজ, 'তিনি (টেন হাগ) যখন প্রথমে আসেন এবং আমরা একটি ট্যুরে গিয়েছিলাম এবং আমাদের অনুশীলন সেশন ছিল। তখন তিনি বলেছিলেন, 'তোমরা যদি এটা কর তাহলে তোমাদের বাদ দেওয়া হবে, তুমি খেলবে না। শুরুতে সবাই একটু একটু করে এমন ছিল: 'সে কি করবে নাকি? একজন বড় খেলোয়াড় যদি তার ইচ্ছামত কাজ না করে তবে সে তাকে আলাদা করবে নাকি করবে না?'

'এবং তিনি এটা অনেকবার করেছিলেন, তিনি ক্রিস্তিয়ানোর সঙ্গে, জাডনের সঙ্গে, মার্কাসের সঙ্গে এটা করেছিলেন,' বলেন এ পর্তুগিজ মিডফিল্ডার।

এমন উড়ন্ত ছন্দে থাকা রাশফোর্ডের ক্ষেত্রেও ন্যুনতম ছাড় দেননি টেন হাগ। ব্রুনোর ভাষায়, 'মার্কাস (র‍্যাশফোর্ড) সম্ভবত উলভসের বিপক্ষে সেরা ফর্মে ছিলেন, ও কিছু ভুল করেছিল এবং ম্যানেজার তাকে দলে নেয়নি। প্রথমে আমরা ভেবেছিলাম 'ও আমাদের প্রধান খেলোয়াড়, আমাদের ওকে প্রয়োজন' কিন্তু দ্বিতীয় মুহূর্তে আমি দাভিদের (দি গিয়া) সঙ্গে বসে ছিলাম এবং আমি বলেছিলাম 'এটা এমন হতে হবে' কারণ তা না হলে ছোটরা ভাববে 'যদি সে তাদের কিছু না করে তবে সে আমারও কিছু করবে না।'

'রাশিকে বলেছিলেন যে তাকে সবকিছুতে ধারাবাহিক হতে হবে, শুধু নিজের খেলায় নয়, লক্ষ্যে এবং পারফরম্যান্সে এমনকি মাঠের বাইরেও। মার্কাস, শুরুতে ক্ষুধার্ত ছিল কারণ ও খেলতে চেয়েছিল কিন্তু তিনি তা করেননি। কিছু ভুল করেছে, মেনে নিয়েছে, এগিয়ে এসেছে, গোল করেছে, আমরা জিতেছি এবং শেষে, ও এবং কোচ হেসেছেন। মাঝে মাঝে আপনাকে আপনার বাড়িতে কিছু নিয়ম তৈরি করতে হবে। অন্যথায়, তারা আপনার উপর চলে যাবে এবং তারা বাড়ির মালিক হবে,' যোগ করেন ব্রুনো।

Comments

The Daily Star  | English

The ones who stayed for some extra cash

Workers who came to the capital or stayed back to earn some extra cash during the Eid-ul-Azha thronged Gabtoli and nearby areas for buses

3h ago