ফুটবল

রেফারির বিরুদ্ধে মামলা করবেন মরিনহো!

বেজায় খেপেছেন জোসে মরিনহো। একে লাল কার্ড দেখে বহিষ্কার হয়েছেন, যেখানে পরের ম্যাচটাই আবার জুভেন্তাসের বিপক্ষে। তার উপর ম্যাচের শেষ দিকে প্রতিপক্ষ পেনাল্টি পেয়ে হার উপহার দেয় তাদের। সবমিলিয়ে রেফারির বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি দিয়েছেন স্পেশাল ওয়ান।

বেজায় খেপেছেন জোসে মরিনহো। একে লাল কার্ড দেখে বহিষ্কার হয়েছেন, যেখানে পরের ম্যাচটাই আবার জুভেন্তাসের বিপক্ষে। তার উপর ম্যাচের শেষ দিকে প্রতিপক্ষ পেনাল্টি পেয়ে হার উপহার দেয় তাদের। সবমিলিয়ে রেফারির বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি দিয়েছেন স্পেশাল ওয়ান।

মঙ্গলবার রাতে সিরিআর ম্যাচে রেলিগেশন জোনে ধুঁকতে থাকা ক্রেমোনেসের বিপক্ষে ২-১ গোলের ব্যবধানে হেরেছে এএস রোমা। ম্যাচের ১৭তম মিনিটে পিছিয়ে যাওয়ার পর ৭১তম মিনিটে সমতা ফিরিয়েছিলেন লিওনার্দো স্পিনাজ্জোলা। তবে ৮৩তম মিনিটে দানিয়েল সিওফানির সফল স্পটকিকে হারতে হয় মরিনহোর শিষ্যদের।

ম্যাচের ৪৭তম মিনিটে লাল কার্ড দেখেন মরিনহো। রেফারির এক সিদ্ধান্তে প্রতিবাদ করতে গিয়ে চতুর্থ রেফারির সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। যার জেরে বহিষ্কার হতে হয় তাকে। যা হজম করতে পারছেন না রোমা কোচ।

ম্যাচ শেষে মামলা করার হুমকি দিয়ে মরিনহো ডিএজেডএনকে বলেন, 'আমি আবেগপ্রবণ, কিন্তু পাগল নই। আমি যেভাবে প্রতিক্রিয়া জানাই, তাতে প্রথমে কিছু ঘটতে হবে। আমি আইনি ব্যবস্থা নিতে পারি সেটা বুঝতে হবে। পিকিনিনি (রেফারি) আমাকে একটি লাল কার্ড দিয়েছেন, কারণ দুর্ভাগ্যবশত চতুর্থ রেফারি আমাকে কী বলেছেন তা বোঝার ক্ষমতা তার নেই।'

উল্টো চতুর্থ রেফারি সেররা তার সঙ্গে বাজে ব্যবহার করেছেন বলেই অভিযোগ করেন রোমা কোচ। যে কারণে দুইজনের কথোপকথনের অডিও সংগ্রহের চেষ্টা চালাবেন বলেই জানান তিনি, 'আমাকে অডিও রেকর্ডিং আছে কি-না তা খুঁজে বের করতে হবে। আমরা রবিবার জুভেন্টাসে খেলব এবং তিনি তুরিন থেকে এসেছেন আমি সে বিষয়ে প্রবেশ করব না।'

'আমার ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো একজন চতুর্থ কর্মকর্তা আমার সঙ্গে সবচেয়ে বাজেভাবে কথা বলেছেন। এটা অযৌক্তিক ছিল। খেলা শেষে আমি তাদের সঙ্গে কথা বলতে গেলাম। আমাকে যখন বিদায় করা হয় পিকিনিনি, যিনি শেষ খেলায় চতুর্থ কর্মকর্তা ছিলেন, আমাকে সেররার কাছে ক্ষমা চাইতে বলেছিলেন।'

'ম্যাচ আমি সেরাকে বলেছিলাম যে কী ঘটেছে তা ব্যাখ্যা করার জন্য তার সাহস থাকা উচিত, কিন্তু তার স্মৃতিতে সমস্যা রয়েছে। আমি সব কিছু প্রকাশ্যে করতে পছন্দ করি,' যোগ করেন মরিনহো।

রেফারির উপর বেজায় খেপলেও নিজেদের ত্রুটিগুলোও দেখছেন মরিনহো, 'ক্লান্তির অজুহাত দেওয়া চলবে না। আমরা কিছুটা দুর্ভাগা ছিলাম, তাদের দেড় সুযোগে দুটি গোল হজম করেছি। এর দায় আমাদের। আমাদের মধ্যে তীব্রতার অভাব ছিল, সরাসরি খেলাটা জিতে নেওয়া উচিত ছিল।'

'এটি অবশ্যই সত্য নয় যে আজ রাতে একটি দল অন্য দলের চেয়ে এটি বেশি চেয়েছিল। রোমার খেলোয়াড়রা সবসময় জিততে চায়। এটা এমন একটা ম্যাচ ছিল না যেটা আমাদের জেতার যোগ্য ছিল, কিন্তু হারও আমাদের প্রাপ্য নয়। সমতা আনার পর, আমরা সবাই ভেবেছিলাম যে জয়সূচক গোল আসবে, কিন্তু তার পরিবর্তে তাদের পেনাল্টি ছিল,' বলেন রোমা কোচ।

Comments