সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ

দেড় বছরের প্রক্রিয়ার ফল এই সাফল্য: বাংলাদেশের কোচ

বুধবার সাফের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ভুটানকে ৩-১ গোলে বিধ্বস্ত করে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। এর আগের ম্যাচে মালদ্বীপকেও একই ব্যবধানে হারিয়েছিল লাল সবুজের প্রতিনিধিরা।
Javier Cabrera

বাংলাদেশের ফুটবল তলানিতে যেতে যেতে প্রায় হারিয়ে বসার দশা হয়েছিল। এক সময় সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ফেভারিট তকমা পাওয়া বাংলাদেশ গত কয়েক বছর গ্রুপ পর্বই পার হতে পারছিল না। অবশেষে ১৪ বছরের খরা কাটিয়ে এবার সাফের সেমিতে পা রেখেছে হ্যাভিয়ের কাবরেরার দল। শেখ মোরসালিন, রাকিব হোসেনরা দেখিয়েছেন ঝলক। বাংলাদেশ কোচ কাবরেরা বলছেন, হুট করে বা ভাগ্য জোরে আসেনি এই সাফল্য। দীর্ঘদিনের প্রক্রিয়ার অনুসরণ করেই পেয়েছেন আলোর দেখা।

বুধবার সাফের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ভুটানকে ৩-১ গোলে বিধ্বস্ত করে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। এর আগের ম্যাচে মালদ্বীপকেও একই ব্যবধানে হারিয়েছিল লাল সবুজের প্রতিনিধিরা।

দুই ম্যাচেই শুরুতে পিছিয়ে পড়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু দারুণ ফুটবলে ঘুরে দাঁড়িয়ে বড় জয়ে দেখিয়েছে নিজের অন্য সামর্থ্যের পরিচয়।

ম্যাচ শেষে গণমাধ্যমে কথা বলতে এসে বাংলাদেশের স্প্যানিশ কোচ কাবরেরা জানালেন, তাদের পরিকল্পনা ছিল অনেকদিনের, 'এটা (সাফের সেমিফাইনালে যাওয়া) ভাগ্য ছিল না। উপহার পাওয়াও নয়। গত দেড় বছর ধরে চালানো প্রক্রিয়ার ফল এটা। এখনো অনেক দূর যাওয়া বাকি তবে সবার সমর্থন দরকার, আমাদের একই কাজ চালিয়ে যেতে হবে'

'২০২২ সালের জানুয়ারিতে আমরা প্রক্রিয়া শুরু করেছিলাম। আমরা ধীরে ধীরে সাফল্য পাচ্ছি। মধ্যপ্রাচ্যের দুই দলসহ সাফের মূল দুই দল হতে পেরেছি।'

দায়িত্ব নেওয়ার পর জাতীয় দলের আদল আর ধরণ ঠিক করতে তৃণমূলে ছুটে যান কোচ। খোঁজে আনেন মেধাবী ফুটবলার, তার কোচিং দর্শনের সঙ্গে মিল রেখে বানাতে থাকেন দল। সেই গল্প শোনালেন তিনি, 'এর পেছনে অনেক কাজ হয়েছে। খেলোয়াড়দের অনেক নিবেদন ছিল। তারা বিশ্বাস করত কি করা লাগবে। কৌশলগত দিক থেকে সাপোর্ট স্টাফদের অবদান ছিল। হাসান আল মামুন আর আমি বিপিএল (বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ), স্বাধীনতা কাপ, ফেডারেশন কাপের প্রতি ম্যাচ থেকে খেলোয়াড় খোঁজার কাজ করেছি। আমরা প্রতিটা অনুশীলন সেশন নজর রেখে বুঝতে চেয়েছি কোন খেলোয়াড় আমাদের প্রক্রিয়ায় মানিয়ে নিতে পারবে। আমরা একইসঙ্গে আরও কিছু স্টাফ বাড়িয়েছি যারা দলে অনেক মান নিশ্চিত করত পারছে।'

অভিজ্ঞদের পাশাপাশি এবার সাফে বাংলাদেশের বেশ কজন তরুণ খেলোয়াড় সবার নজর কেড়েছেন। বিশেষ করে মাত্র ১৯ বছরের মোরসালিন তো দুই ম্যাচে গোল করে বনে গেছেন তারকা। রাকিব দেখিয়েছেন তার দক্ষতা।

ভুটানের বিপক্ষে ম্যাচে মোরসালিন আর রাকিবের দৃষ্টিনন্দন দুই গোলের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাইরাল। কোচ অবশ্য এই দুজন ছাড়া বাকিদেরও নিবেদনের কথা বলতে চান,  '(ফয়সল আহমেদ) ফাহিম প্রথম দুই ম্যাচে খুব ভালো খেলেছে। সুমন (রেজা) যেকোনো সময় খেলে সেরটা দিতে পারে। মোরসালিনের সামর্থ্য আছে সুযোগ তৈরি করা। সে গত ম্যাচে শেষ গোলটা করেছে, আজ সে প্রথম ২০ মিনিটের মধ্যে গোল পেয়েছে। সে অ্যাটাকিং থার্ডে থাকলে মনে হয় কিছু একটা হবে।'

'রাকিব এখন অন্য উচ্চতায়। রাকিব ও মোরসালিন অনেক কিছু করেছে, তবে অন্যরাও করেছে দল হিসেবে। কিন্তু আজ রাকিব আর মোরসালিনই মূল খেলোয়াড় হিসেবে দুরন্ত ছিল।'

Comments

The Daily Star  | English

Israeli leaders split over post-war Gaza governance

New divisions have emerged among Israel's leaders over post-war Gaza's governance, with an unexpected Hamas fightback in parts of the Palestinian territory piling pressure on Prime Minister Benjamin Netanyahu

1h ago