'বড় মস্তিষ্কে'র মানুষদের কাছে প্রশ্ন গার্দিওলার

নতুন নিয়মের প্রথম শিকার হতে হলো সিটিজেনদের।

নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার পর যোগ করা সময়ের খেলাও প্রায় শেষ। ঠিক তখনই সমতায় ফেরে আর্সেনাল। এরপর টাই-ব্রেকারে জিতে নেয় মৌসুমের প্রথম শিরোপা। কিন্তু নতুন নিয়মে খেলা না হলে সমতার জন্য এতোটা সময় পেত না গানাররা। আগেই শিরোপা উল্লাসে মাততে পারতো ম্যানচেস্টার সিটি। কিন্তু নতুন নিয়মের প্রথম শিকার হতে হয় সিটিজেনদের।

এমন পরাজয়ের পর স্বাভাবিকভাবেই ক্রুদ্ধ সিটি কোচ পেপ গার্দিওলা। কমিউনিটি শিল্ডের ১০১তম মিনিটে গোল হজম করে তাই 'বড় মস্তিষ্কে'র সেই সকল মানুষদের কাছে এ নিয়ে প্রশ্ন করেছেন যারা নতুন ইনজুরি-টাইমের নিয়মগুলোর তৈরির সময় খেলার সঙ্গে জড়িত লোকেদের সঙ্গে পরামর্শ করেনি।

লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে কমিউনিটি শিল্ডের ম্যাচের ৭৭তম মিনিটে কোল পামার এগিয়ে দিয়েছিলেন সিটিকে। কিন্তু ম্যাচের প্রায় শেষ দিকে লিয়েন্দ্রো ট্রসার্ড সমতা আনেন গানারদের হয়ে। এরপর টাই-ব্রেকারে ৪-১ ব্যবধানে জয় পায় আর্সেনাল।

ম্যাচ শেষে তাই এই নিয়ম তৈরি করা মানুষদের কাছে প্রশ্ন তুলেছেন সিটি কোচ, 'এটা বড় মস্তিষ্কের মানুষদের কাছে প্রশ্ন, যারা এই জিনিসগুলোর সিদ্ধান্ত নেয়। এখানে অনেক ম্যাচ এবং প্রতিবার আপনি আট বা ১০ মিনিট যোগ করলে এটি একটি… কিন্তু শোনেন, তারা কখনোই আমাদের মতামত, বিশ্ব ফুটবলের মানুষ, পরিচালক বা খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরামর্শ করে না।'

ঘরোয়া ও ইউরোপীয় প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এমনিতেই ঠাসা সূচির চাপে থাকতে হয় খেলোয়াড়দের। তার উপর ইংল্যান্ডে প্রতিযোগিতা একটি বেশি। তাই চাপ আরও বেশি। সেখানে নিয়মিত ম্যাচের পরিধি বাড়লে খেলোয়াড়দের উপর আরও চাপ সৃষ্টি হবে বলে মনে করেন গার্দিওলা, 'এখন, প্রতিটি ম্যাচ আমরা ১০০ মিনিটের জন্য খেলতে যাচ্ছি। সময় নষ্ট করা, আমার দৃষ্টিকোণ থেকে, আরও ১০ মিনিট বাড়িয়ে এর সমাধান করা যাচ্ছে না। এটা খেলোয়াড়দের জন্য বেশি চাপের। অনেক বেশি।'

তবে এর ঠিক উল্টোটা দেখছেন আর্সেনাল কোচ মিকেল আরতেতা। নতুন নিয়মে দারুণ খুশি তিনি, 'এটা করায় সত্যিই ভালো হয়েছে। আমাদের এখন ১০০ মিনিট খেলার জন্য প্রস্তুত হতে হবে। এটা প্রতি সপ্তাহেই ঘটবে।'

Comments

The Daily Star  | English

Home minister says it's a planned murder

Three Bangladeshis arrested; police yet to find his body

2h ago