ভক্তদের কাছে ক্ষমা চাইলেন জাভি

স্প্যানিশ সুপার কাপ ধরে রাখার লড়াইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কাছে বিধ্বস্ত হয়েছে বার্সেলোনা
জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ায় আনন্দিত হলেও বার্সেলোনার কোচ জাভির চোখে শিষ্যদের ভুলও ধরা পড়েছে। ছবি: এএফপি

স্প্যানিশ সুপার কাপ ধরে রাখার লড়াইয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরে গিয়েছে বার্সেলোনা। রীতিমতো তাদের বিধ্বস্ত করে ছেড়েছে লস ব্লাঙ্কোসরা। লড়াইটাও জমিয়ে করতে পারেনি। যে কারণে ভক্ত-সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন বার্সেলোনা কোচ জাভি হার্নান্দেজ।

রোববার রাতে সৌদি আরবের রিয়াদের কিং সাউদ ইউনিভার্সিটি স্টেডিয়ামে স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে বার্সেলোনাকে ৪-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় রিয়াল মাদ্রিদ। ম্যাচের প্রথম ১০ মিনিটেই দুই গোলের ব্যবধানে দলকে এগিয়ে দেন ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। এরপর রবার্ট লেভানদোভস্কির গোলে ম্যাচে ফিরেছিল বার্সা। তবে প্রথমার্ধেই হ্যাটট্রিক পূরণ করে কাজ কঠিন করে দেন ভিনিসিয়ুস। এরপর দ্বিতীয়ার্ধে আরও একটি গোল দিয়ে শেষ পেরেক ঠুকে দেন রদ্রিগো।

এদিন ম্যাচের প্রথম দুটি গোল 'হাই-লাইন' ডিফেন্সের কারণে হজম করতে হয় বার্সাকে। প্রথমবার জুড বেলিংহ্যামের বাড়ানো বল অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে ধরেন ভিনিসিয়ুস। তিন মিনিটের ব্যবধানে দানি কারবাহালের বাড়ানো পাস ধরেন রদ্রিগো। এরপর তার পাস থেকে গোল আদায় করেন স্বদেশী ভিনিসিয়ুস। তিন মিনিটে দুটি গোল হজম করে কোণঠাসা হয়ে পড়ে বার্সা। তবে লেভার গোলে আশা দেখলেও পেনাল্টি আবার পিছিয়ে দেয় তাদের। সেখান থেকে আর ফিরে আসা হয়নি কাতালানদের।

ম্যাচ শেষে তাই স্বাভাবিকভাবেই হতাশ বার্সা কোচ, 'আমরা এভাবে ফাইনালে আসতে পারি না। আমরা ডিফেন্সে এবং হাই প্রেসিংয়ে খুবই বাজে ছিলাম। আপনি শুরুতেই ২-০ ব্যবধানে পিছিয়ে ফাইনাল শুরু করতে পারেন না। তারপর আমরা রবার্ট লেভানদোভস্কির গোলে কিছুটা ফিরে এসেছি, কিন্তু পেনাল্টি, যা আমার মতে পেনাল্টি ছিল না, আমাদের আবার পিছিয়ে দিল। তারপর দ্বিতীয়ার্ধ সত্যিই খারাপ হয়েছে।'

'ম্যাচে রক্ষণভাগে আমরা তাদের রান থামাতে পারিনি। আমরা ফাউল করিনি। তারা তা থেকে বাঁচে, সেখান থেকেই প্রথম দুটি গোল এসেছে। আমরা এটা জানতাম এবং অনুশীলনে এসব বন্ধ করার জন্য কাজ করেছিলাম, কিন্তু এটা কার্যকর হয়নি। শুধু বার্সা ম্যানেজার হিসেবে নয়, একজন বার্সা ভক্ত হিসেবে আমি খুবই দুঃখিত। এটাই আমি বলতে পারি। আমাদের ভক্তদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী তবে আমরা ফিরে আসব,' ভক্তদের কাছে ক্ষমা চেয়ে এমনটাই বলেন জাভি।

Comments

The Daily Star  | English

$7b pledged in foreign funds

When Bangladesh is facing a reserve squeeze, it has received fresh commitments for $7.2 billion in loans from global lenders in the first seven months of fiscal 2023-24, a fourfold increase from a year earlier.

51m ago