মাহমুদউল্লাহর ব্যাপারে প্রশ্ন ‘অপ্রাসঙ্গিক’ বললেন সাকিব

সাকিব প্রশ্নকর্তাকে শুধরে দিয়ে বলেন, মাহমুদউল্লাহর জায়গায় দলে এসেছিলেন তাওহিদ হৃদয়, যিনি অভিষেকের পর থেকেই আলো ছড়াচ্ছেন,
mahmudullah and shakib al hasan

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে কতটা মিস করেছেন? তার জায়গায় যারা খেলছেন তাদের নিয়ে কতটা সন্তুষ্ট? সাংবাদিকের প্রশ্নটা শুনে হেসে সাকিব আল হাসান বললেন, প্রশ্নটাই একদম অপ্রাসঙ্গিক। পরে জানালেন মাহমুদউল্লাহর জায়গায় এমন একজনকে নেওয়া হয়েছে যিনি নিয়মিত পারফর্ম করছেন।

ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের পর বিশ্রামের আদলে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েন মাহমুদউল্লাহ। তাকে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে হোম-অ্যাওয়ে দুই সিরিজের পর আফগানিস্তানের বিপক্ষে হোম সিরিজেও দেখা যায়নি। এশিয়া কাপেও প্রাথমিক দলে থাকলেও তাকে বাদ দিয়েই করা হয় মূল স্কোয়াড।

তবে অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারকে নিয়ে বিসিবির অস্পষ্ট কথাবার্তা তাকে জিইয়ে রেখেছে আলোচনায়। সেই সূত্রেই শনিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারের পর মাহমুদউল্লাহর বিষয়ে প্রশ্ন করেন এক সাংবাদিক। উত্তরে হেসে কড়া জবাব দেন অধিনায়ক সাকিব, 'দেখেন, প্রথম কথা হলো শেষ তিন সিরিজে (মাহমুদউল্লাহ) রিয়াদ ভাই ছিল না। তখন এসব কথা আপনারা বলেছেন কিনা আমি জানি না। এখন বলছেন (হাসি)। আমার কাছে মনে হয় প্রশ্নটা খুবই অপ্রাসঙ্গিক।'

এরপর আবার প্রশ্ন আসে মাহমুদউল্লাহর জায়গায় খেলা শামীম হোসেন পাটোয়ারি, আফিফ হোসেনের পারফরম্যান্স নিয়ে। সাকিব প্রশ্নকর্তাকে শুধরে দিয়ে বলেন, মাহমুদউল্লাহর জায়গায় দলে এসেছিলেন তাওহিদ হৃদয়, যিনি অভিষেকের পর থেকেই আলো ছড়াচ্ছেন,  'আপনি আরেকটা ভুল প্রশ্ন করলেন। রিয়াদ ভাইয়ের জায়গায় যখন কাউকে আনা হয়েছিল দলে, সেটা ছিল তাওহিদ হৃদয়।'

জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার আগে পাঁচ বা ছয়ে খেলতে দেখা যেত মাহমুদউল্লাহকে। অর্থাৎ শামীম বা আফিফের বর্তমান পজিশনে গত পাঁচ বছরে খেলেননি তিনি। গত পাঁচ বছরে সাতে এই অভিজ্ঞ ব্যাটার খেলেছেন স্রেফ তিন ইনিংস, করেছেন মোটে ১১৩ রান। এদিক থেকে সাকিবের কথাই বেশি যৌক্তিক।

সাতে যেখানে গত পাঁচ বছরে ৩ বার খেলেছেন, ছয়ে খেলেছেন ৩৭ বার। ৩৫.০৬ গড় আর ৭৪.৭৬ স্ট্রাইকরেটে তার ব্যাট থেকে আসে ১ হাজার ৫২। নিচের দিকে নেমে দ্রুত রান তোলার চাহিদা মেটাতে না পারাতেই প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ে দলে তার অবস্থান।

Comments

The Daily Star  | English

93pc jobs on merit, 7pc from quotas

Govt issues circular; some quota reform organisers reject it

2h ago