'আমার নাম তাওহিদ হৃদয়'

অভিষেক ম্যাচেই সেরার পুরষ্কার পাওয়া হৃদয় ম্যাচ শেষে নিজের সঠিক নাম জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, 'আমার আসল নাম হচ্ছে তাওহীদ হৃদয়।'

বয়সভিত্তিক দল থেকে উঠে আসা তাওহিদ হৃদয়ের। তবে তখন থেকে সবাই তাকে তৌহিদ হৃদয় নামেই চেনে। এর আগেও কয়েকবার নিজের নাম নিয়ে আক্ষেপের কথা জানিয়েছিলেন। কিন্তু লাভ হয়নি। এরপরও ভুল নামেই ডাকা হয় তাকে। আরও একবার নিজের নাম জানিয়ে গেলেন এ তরুণ।

শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে রেকর্ড ১৮৩ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। রানের ব্যবধানে যা বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় জয়। আর এ জয়ে বড় কৃতিত্ব রয়েছে হৃদয়ের। তার ও সাকিবের ব্যাটে চড়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ৩৩৮ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা। এরপর ১৫৫ রানে গুটিয়ে যায় আইরিশরা।

অভিষেক ম্যাচেই সেরার পুরষ্কার পাওয়া হৃদয় ম্যাচ শেষে নিজের সঠিক নাম জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, 'আমার আসল নাম হচ্ছে তাওহিদ হৃদয়। সবাই তৌহিদ হৃদয় বলে। আমি এটা অনেক জায়গাতেই বলেছি। যখন থেকে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলি তখন থেকেই। কিছু জায়গায় দেখি। এখনও দেখি বেশির ভাগ জায়গায় এটা চলতেছে।'

এরপর নিজের নামের বানানও জানিয়ে গেলেন এ তরুণ, 'আমার নাম তাওহিদ হৃদয় ডাকলে ভালো লাগে। তাওহীদের সুন্দর একটা মিনিং আছে তো। এর বানান হচ্ছে (ইংরেজি) টি এর পর এ হবে। (বাংলায়) তয় আকারের পর ও।'

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে এদিন নতুন বিশ্ব রেকর্ড গড়ার সামনে ছিলেন হৃদয়। ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে মাত্র ১৬ জন ক্রিকেটার অভিষেক ম্যাচে সেঞ্চুরি পেয়েছেন। এ তালিকায় নেই বাংলাদেশের কোনো ব্যাটার। পাঁচ নম্বরে নেমে তো পারেননি বিশ্বের কেউই। কিন্তু ব্যক্তিগত ৯২ রানে বোল্ড হয়ে গেছেন গ্রাহাম হিউমের বলে।

তবে নার্ভাস নাইন্টিজে অভিষেক ম্যাচে আটকে যাওয়া সপ্তম খেলোয়াড় হৃদয়। এর আগে নার্ভাজ নাইন্টিজে আউট হয়েছেন নিউজিল্যান্ডের স্টিফেন ফ্লেমিং (৯০), ইংল্যান্ডের (আয়ারল্যান্ডের হয়ে অভিষেক) ইয়ন মরগান (৯৯), দক্ষিণ আফ্রিকার ফন ডার ডাসেনের (৯৩) মতো তারকা খেলোয়াড়রাও।  

Comments

The Daily Star  | English