আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০২৩

প্রথম টাইমড আউট হতে পারতেন অশ্বিন

টাইমড আউট হয়েও (হওয়া থেকে) যেভাবে বেঁচে গিয়েছিলেন অশ্বিন

প্রথম টাইমড আউট হতে পারতেন অশ্বিন

টাইমড আউট হয়েও (হওয়া থেকে) যেভাবে বেঁচে গিয়েছিলেন অশ্বিন
প্রথম টাইমড আউট হতে পারতেন অশ্বিন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রথম টাইমড আউট হওয়া ব্যক্তির নাম এখন ক্রিকেট অনুসারী সকলেরই মুখে মুখে। অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের জায়গায় সে নামটা হতে পারতো রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। টাইমড আউটের উপযুক্ত হয়েও বেঁচে গিয়েছিলেন ভারতের এই অফ স্পিনার। ম্যাথিউসের টাইমড আউটের ঘটনা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে নিজের সে গল্পটাও শুনিয়েছেন অশ্বিন।

ডানহাতি অফ স্পিনারের ঘটনাটা ঘটে চলতি বছরেরই ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার টেস্টে। নাগপুরে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম সে টেস্টে ভারতের ইনিংস শুরু হয় দিনের শেষ অংশে। ওয়ান ডাউনে নাইটওয়াচম্যান হিসেবে অশ্বিনকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। প্রথম উইকেট পড়তে পড়তে দিনের শেষ বেলা চলে আসে, সেখানেই চালাকি করতে গিয়ে বিপদ প্রায় ডেকে এনেছিলেন অশ্বিন।

'আমি ধীরে ধীরে যেতে চেয়েছিলাম, যাতে ওটা শেষ ওভার হয় এবং দিনের খেলা শেষ হয়ে যায়। কিন্তু এরপর আম্পায়ার আমাকে বললেন, ''তুমি ক্রিজে কিছুক্ষণ দেরিতে এসেছ। তুমি কি জানো, তারা যদি আবেদন করত তাহলে আমি তোমাকে আউট দিয়ে দিতাম।" আমি জোরেশোরে একটা ধাক্কা খেয়েছিলাম তখন,' নিজের ব্যক্তিগত ইউটিউবে বলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার।

অশ্বিন সঙ্গে যোগ করেন, 'আসলে খুব বেশি দল ওই আউটের আবেদন করতে সজাগ থাকবে না।' অস্ট্রেলিয়ানরা সজাগ থাকুক কিংবা জেনেও সে আউটের আবেদন না করুক- অশ্বিনের ভাগ্য ভালো, ক্রিকেটের প্রথম টাইমড আউট হওয়া ব্যাটার ম্যাথিউসের জায়গায় তিনি হননি।

ম্যাথিউসের টাইমড আউটের ঘটনা নিয়ে ভারতের কিংবদন্তি অফ স্পিনার বলেন, 'এক পক্ষ নিয়ম নিয়ে কথা বলছে, আর আরেক পক্ষ স্পিরিট অফ ক্রিকেট নিয়ে। যখন ম্যাথিউস ব্যাটিংয়ে আসেন, তার হেলমেট ঠিক ছিল না এবং সে সেটা পরিবর্তন করতে চেয়েছিল। আমি আরেকটা ভিডিও দেখলাম যেখানে সাকিব গার্ড নিয়ে আসেননি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে এবং পরে তাকে সেটা আনার অনুমতি দেওয়া হয়। এটা এখন অনেকটাই যুদ্ধের মতো হয়ে গেছে দুই দেশের মধ্যে।'

এই ঘটনায় অবশ্য দুই পক্ষকেই সঠিক মনে করছেন অশ্বিন, 'এই ঘটনায়, দুজনেই সঠিক। সাকিব জানত নিয়ম কী। আর ম্যাথিউসের দিক হচ্ছে, নিয়ম থাকলেও হেলমেটে গড়বড় দেখা দেওয়ায় ছাড় দেওয়া যেত।'

ওই আউটের ধরনে যে কারো খারাপ লাগবে বুঝতে পারলেও সাকিবের সিদ্ধান্তের বিপক্ষে নয় অশ্বিন, 'আসলে সাকিব আবেদন করেছে, আম্পায়ার আউট দিয়েছেন, একমত। সম্প্রতি নতুন তথ্য এসেছে, ম্যাথিউসকে নাকি আম্পায়াররা টাইমড আউট নিয়ে আগেই সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু ম্যাথিউস খুব নিরাশ হয় ওভাবে আউট হয়ে এবং তার সে অধিকারও আছে। কেউই এভাবে আউট হওয়া উচিত নয়, এমন আউট হলে খারাপ লাগাটাই স্বাভাবিক।'

Comments