বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, গেজেটস

আয় কমলেও গাড়ির দাম বাড়াবে না টেসলা

গত কোয়ার্টারের তুলনায় গাড়ি প্রতি লাভের দিক থেকে টেসলার আয় নাটকীয়ভাবে কমেছে। 
আয় কমলেও গাড়ির দাম বাড়াবে না টেসলা
ইলন মাস্ক। ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি গাড়ির দাম কমানোর ফলে টেসলার আয় অনেকটা কমেছে। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ রিপোর্টেও তার প্রতিফলন দেখা গেছে। কিন্তু তারপরও টেসলার প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক বলেছেন, তিনি গাড়ির দাম কমিয়ে কম লাভের কৌশল অব্যাহত রাখবেন এবং তার চোখ ভবিষ্যতে দীর্ঘস্থায়ী লাভের দিকে।

গত জানুয়ারি মাসে বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি তাদের মডেল ওয়াই এসইউভি এবং মডেল ৩ সেডানের দাম কমানো শুরু করে। সর্বশেষ আয় প্রতিবেদন অনুসারে গত কোয়ার্টারের তুলনায় গাড়ি প্রতি লাভের দিক থেকে টেসলার আয় নাটকীয়ভাবে কমেছে। 

বিনিয়োগকারীদের এক সম্মেলনে বিষয়টি সম্পর্কে ইলন মাস্ক বলেন, তিনি দাম কমিয়ে গাড়ি প্রতি কম লাভ করার এই কৌশল ভবিষ্যতেও অব্যাহত রাখবেন, যাতে গতানুগতিক গাড়ি ও অন্যান্য বৈদ্যুতিক গাড়ির গ্রাহকদের নিজের দিকে টেনে আনা যায়।

কিন্তু বিশ্লেষকরা বলছেন, ভবিষ্যতে দীর্ঘস্থায়ী বাজার ধরতে এখন গাড়ির দাম কমানোর ফলে টেসলাকে সাময়িক আর্থিক ক্ষতি সামলাতে হবে। তবে টেসলার এই কৌশল কাজে দেবে কিনা, সেটি নিশ্চিতভাবে বলার সময় এখনো আসেনি।

হতাশাজনক আয়

চলতি বছর মোট ৬ বার গাড়ির দাম কমিয়েছে টেসলা।

বছরের শুরুর দিকে মডেল ৩-এর প্রাথমিক দাম ছিল ৬২ হাজার ৯৯০ মার্কিন ডলার। বর্তমানে কমতে কমতে এটি এসে ঠেকেছে ৪০ হাজার ডলারে। বছরের শুরুর তুলনায় মডেল এস এবং মডেল এক্স-এর দামও কমানো হয়েছে ২০ শতাংশ।

এমন আগ্রাসী মূল্যহ্রাসের প্রভাব পড়েছে টেসলার আয়ে। সম্প্রতি প্রকাশিত কোম্পানির আয় প্রতিবেদন অনুসারে টেসলার আয় ২৪ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ২.৫ বিলিয়ন ডলারে।

ওয়াল স্ট্রিটের বিশ্লেষকরা অবশ্য আগে থেকেই অনুমান করছিলেন যে টেসলার গাড়ির দাম কমবে। তবে যে হারে কমেছে, তাতে সবাই বিস্মিত হয়েছেন।

আর্থিক প্রতিষ্ঠান মর্নিংস্টার-এর বিশ্লেষক সেথ গোল্ডস্টেইন বলেন, 'আমি এবং বাজার টেসলা গাড়ির প্রফিট মার্জিন যতটা কমবে বলে ধারণা করেছিল, বাস্তবে কমেছে তার চেয়েও অনেক বেশি।'

মার্কেট শেয়ার বাড়াতে চায় টেসলা

ইলন মাস্ক সম্প্রতি টেসলার বিনিয়োগকারীদের বলেছেন যে, তার প্রতিষ্ঠান এখন লাভের চেয়ে বেশি বিক্রির দিকে মনোযোগ দিচ্ছে। তিনি বলেন, 'বেশি লাভে কম বিক্রির চেয়ে কম লাভে বেশি বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা।'

মাস্কের এই কৌশলের আসল উদ্দেশ্য হচ্ছে লিগ্যাসি অটোমেকারস বা প্রতিষ্ঠিত গাড়ি নির্মাতাদের মার্কেট শেয়ারে ভাগ বসানো ও টেসলার মার্কেট শেয়ার আরও বাড়ানো। টেসলার মূল্যহ্রাসের সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় লিগ্যাসি অটোমেকারদের মধ্যে এখনো পর্যন্ত শুধু ফোর্ডই তাদের গাড়ির দাম কমিয়েছে। যদিও ফোর্ড শুধু তাদের মুস্টাং মাক-ই গাড়ির দাম কমিয়েছে।

গাড়ি শিল্পে দাম নিয়ে প্রতিযোগিতা অস্বাভাবিক কিছু না। তবে অন্যান্য গাড়ি নির্মাতারা এখনো টেসলার মতো এতটা আগ্রাসী মূল্যহ্রাসের কথা বিবেচনা করছে না। কারণ, এতে তাদের যে আর্থিক ক্ষতি হবে, তা সহ্য করার মতো যথেষ্ট সামর্থ্য ও মনোবল হয়তো অনেকেরই নেই।

গোল্ডস্টেইন বলেন, 'আমরা মনে হয় লিগ্যাসি অটোমেকাররা এখন কিছুটা দ্বিধাগ্রস্ত। তারা কি গাড়ির দাম কমাবে, নাকি বেশি লাভে কম গাড়ি বিক্রি করবে? তাদের সামনে এখন দুটি পথ খোলা আছে- হয় দাম কমাতে হবে, নয়তো লাভের পরিমাণ অনেকটা কমাতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে তারা কেমন প্রতিক্রিয়া দেখায়, তা দেখাটা উপভোগ্য হয়ে উঠতে পারে।'

মূল্যহ্রাসের/ কাটছাঁট দীর্ঘস্থায়ী সুফল পাবে টেসলা

গত কোয়ার্টারে টেসলার গাড়ির দাম কমানোর ফলে প্রফিট মার্জিনও কমেছে। তবে মাস্ক যদি তার পরিকল্পিত কাটছাঁট নীতি বাস্তবায়ন করতে পারেন, তাহলে এই ক্ষতি পোষানো সম্ভব হবে।

গত ১লা মার্চ এই উপস্থাপনায় মাস্ক এবং টেসলার অন্যান্য কর্মকর্তারা বলেছেন, তারা আরও উদ্ভাবনী ও সাশ্রয়ী নির্মাণ প্রক্রিয়া চালু করবেন এবং তুলনামূলক ছোট কারখানায় উৎপাদন শুরু করবেন। এতে কোম্পানির খরচ কমানো সম্ভব হবে। টেসলা আনুমানিক ২৫ হাজার ডলারের সাশ্রয়ী বৈদ্যুতিক গাড়ি বাজারে ছাড়তে পারে, এমন গুঞ্জনও আছে।

আগ্রাসী মূল্যহ্রাসের ফলে টেসলার সাময়িক আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে। কিন্তু দীর্ঘস্থায়ী লাভের (বেশি মার্কেট শেয়ার দখল) কথা বিবেচনা করে টেসলা আপাতত এই ক্ষতি সহ্য করছে। তবে এই কৌশল সফল হবে কিনা, সেটা সময়ই বলে দেবে।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার

গ্রন্থনা: আহমেদ হিমেল

Comments