ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজে নবীনবরণ

অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশ এবং শিক্ষার্থীদের বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজের অষ্টম ব্যাচের (ইউএসবিএমসি: ০৮) নবীনবরণ অনুষ্ঠান হয়েছে।
ছবি: সংগৃহীত

অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশ এবং শিক্ষার্থীদের বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজের অষ্টম ব্যাচের (ইউএসবিএমসি: ০৮) নবীনবরণ অনুষ্ঠান হয়েছে।

আজ বুধবার এই নবীনবরণ অনুষ্ঠান হয়েছে।

কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব:) ডা. মো. আজিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের চিকিৎসকদের সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি স্বাধীনতা পুরস্কার প্রাপ্ত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া।

প্রধান অতিথি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনাদর্শ নবীন ও পুরাতন শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরেন। তিনি মহান নেতা ও বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার জন্য যে সংগ্রাম ও ত্যাগ স্বীকার করেন তা বর্ণনা করেন।

প্রধান অতিথি বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে একজন আদর্শ চিকিৎসক হয়ে দেশকে সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে শিক্ষাগ্রহণ ও পরবর্তী জীবনে ব্রতী হবার আহ্বান জানান। তিনি বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রার কথা তুলে ধরে চিকিৎসা ক্ষেত্রে তার সব অবদানের কথা স্মরণ করে চিকিৎসা পেশায় আত্ম-নিয়োগের জন্য সব নবীন মেডিকেল শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান।

বিশেষ অতিথি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া নবীন শিক্ষার্থীদের দেশের মানুষের কথা বিবেচনা করে আদর্শ ও নৈতিক মূল্যবোধ সম্পন্ন চিকিৎসক হবার আহ্বান জানান। তিনি চিকিৎসকদের গৌরব উজ্জ্বল ইতিহাস তুলে ধরে তা থেকে শিক্ষা নিয়ে নবীন শিক্ষার্থী ও চিকিৎসকদের কাজ করার আহ্বান জানান।

অধ্যক্ষ অধ্যাপক ব্রিগে. জেনা. (অব) ডা. মো. আজিজুল ইসলাম একজন ভাল মানুষ, মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ ও চিকিৎসক হবার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান। দেশের চিকিৎসা ক্ষেত্রে ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজ অনবদ্য অবদান রাখবে বলে তিনি প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপাধ্যক্ষ ডা. মো. এনায়েত করিম, এনাটমি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. মেহেরুন্নেসা বেগম, সার্জারি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ব্রিগেডিযার জেনারেল (অব) ডা. মো. আব্দুল মতিন ও ইউএস-বাংলা গ্রুপের উপদেষ্টা বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সরকার মুহাম্মদ শামসুদ্দীন (অব) শিক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন প্রেষণামূলক বক্তব্য প্রদান করেন।

পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিকে ফুলেল স্বাগত জানান কলেজের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ ও শিক্ষার্থীরা। প্রধান অতিথি, অধ্যক্ষ ও অন্যান্য সব অতিথি ও নবীন শিক্ষার্থীদের বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন। নবীনবরণ উপলক্ষে কলেজকে আকর্ষণীয় ভাবে বেলুন ও ফুল দিয়ে সাজানো হয়।

আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে শিক্ষার্থীদের উপস্থাপনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানটির সার্বিক সহযোগিতায় ছিল স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যাল লিমিটেড।   

Comments

The Daily Star  | English
Sheikh Hasina's Sylhet rally on December 20

Hasina doubts if JP will stay in the race

Prime Minister Sheikh Hasina yesterday expressed doubt whether the main opposition Jatiya Party would keep its word and stay in the electoral race.

2h ago