ঠিকাদারকে মারধরের অভিযোগে পবিপ্রবি ছাত্রলীগ সভাপতিকে অব্যাহতি

চাঁদা না পেয়ে ঠিকাদারকে মারধর ও কাজ বন্ধ করে রড নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) ছাত্রলীগের সভাপতি আরাফাত ইসলাম সাগরকে দলীয় পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।
ছবি: সংগৃহীত

চাঁদা না পেয়ে ঠিকাদারকে মারধর ও কাজ বন্ধ করে রড নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) ছাত্রলীগের সভাপতি আরাফাত ইসলাম সাগরকে দলীয় পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

আজ শুক্রবার বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম পান্থের সই করা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয় হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী ও সংগঠনের মর্যাদা ক্ষুণ্ন এমন কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আরাফাত ইসলাম সাগরকে তার দলীয় পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হলো। সেই সঙ্গে কেন তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে স্থায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে উপযুক্ত কারণসহ আগামী ১৫ দিনের মধ্যে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদকের কাছে জবাব জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আরাফাত ইসলাম সাগর দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আমি প্রেস বিজ্ঞপ্তি পেয়েছি। যে বা যারা আমার বিরুদ্ধে যড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে তাদের উদ্দেশ্য সফল হবে না।'

উল্লেখ্য, সম্প্রতি আরাফাত ইসলাম সাগর এবং তার কয়েকজন অনুসারিদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি, মারধর এবং প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ ওঠে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে নির্মাণাধীন শেখ রাসেল হল ও শেখ হাসিনা হলের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ তোলা হয়েছে।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের প্রকল্প ব্যবস্থাপক এনামুল হক বুধবার রাতে দুমকি প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, 'ছাত্রলীগ নেতারা মঙ্গলবার রাতে তার কাছে চাঁদা দাবি করেন। এর আগেও তারা চাঁদা নিয়েছেন। চাঁদা না দিলে নির্মাণ কাজ বন্ধসহ শ্রমিকদের ওপর হামলা করার হুমকি দিয়েছেন।'

তিনি আরও বলেন, মঙ্গলবার রাতে নির্মাণাধীন শেখ রাসেল হলের সামনে থেকে ছাত্রলীগ সভাপতির অনুসারী গোলাম রাব্বানী সুহৃদ, ইমরান হোসেনসহ ৬-৭ জন ছাত্রলীগ নেতা একটি ভ্যানে করে জোর করে নির্মাণ কাজের রড নিয়ে যাচ্ছিলেন। প্রকল্পের সুপারভাইজার সালাউদ্দিন সিকদার কথা বলতে গেলে তারা বলেন যে ছাত্রলীগ সভাপতি তাদেরকে রড নিয়ে যেতে বলছেন। খবর পেয়ে এনামুল ঘটনাস্থলে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতাদের রড নিতে বাধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ছাত্রলীগ নেতা গোলাম রাব্বানী সুহৃদ এনামুল, সালাউদ্দিনসহ নির্মাণ শ্রমিকদের মারধর করেন। তারা এনামুলের মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে যান। মারধরে আহত সালাউদ্দিনকে দুমকি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়েছে।

গত কয়েকদিন আগের একটি ভিডিওতে দেখা যায় চাঁদার জন্য প্রজেক্ট ম্যানেজার এনামুলকে গালিগালাজ করছেন ছাত্রলীগ নেতা আরাফাত ইসলাম সাগর। সাগরকে বলতে শোনা যায়, কত টাকা দিয়েছে? পাশে থাকা ছাত্রলীগের আরেক নেতা বলেন ৩ লাখ ৬২ হাজার দিয়েছে।

এ ঘটনায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স আমির ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশনের প্রকল্প ব্যবস্থাপক এনামুল নিরাপত্তা চেয়ে বুধবার রাতে দুমকি থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন তিনি।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবদুল হান্নান বলেন, 'একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

পবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত লিখিত অভিযোগ পাবার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, 'বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা কমিটিতে বিষয়টি তোলা হবে এবং এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

Comments

The Daily Star  | English

Metro rail operations resume after 1.5 hours

Metro rail operations resumed after one and a half hours of suspension this morning

35m ago