শীর্ষ খবর

সার্চ কমিটির প্রতি সুশীল সমাজ আস্থাশীল, ভালো কাজের প্রত্যাশা

নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের লক্ষ্যে গঠিত সার্চ কমিটির প্রতি আস্থা প্রকাশ করেছে দেশের সুশীল সমাজ। এরই সঙ্গে সর্বজন গৃহীত ব্যক্তিদের নিয়ে পরবর্তী নির্বাচন কমিশন গঠনের পরামর্শও দিয়েছেন তারা।
নির্বাচন কমিশনের সার্চ কমিটির সঙ্গে বৈঠকে সুশীল সমাজের চারজন নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি (ডান থেকে) দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, আইনজীবী রোকনউদ্দিন মাহমুদ, সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবু হেনা এবং দ্য ডেইলি স্টার সম্পাদক ও প্রকাশক মাহফুজ আনাম, ছবি: মোহাম্মদ আল মাসুম মোল্লা

নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের লক্ষ্যে গঠিত সার্চ কমিটির প্রতি আস্থা প্রকাশ করেছে দেশের সুশীল সমাজ। এরই সঙ্গে সর্বজন গৃহীত ব্যক্তিদের নিয়ে পরবর্তী নির্বাচন কমিশন গঠনের পরামর্শও দিয়েছেন তারা।

আজ সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের লাউঞ্জে নির্বাচন কমিশনের সার্চ কমিটির সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সুশীল সমাজের চারজন নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি গণমাধ্যমের কাছে এ কথা বলেন।

সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবু হেনা বলেন, “পরবর্তী নির্বাচন কমিশনারদের অবশ্যই দক্ষ, সৎ এবং দল-নিরপেক্ষ হতে হবে।”

দৈনিক সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার বলেন, সার্চ কমিটির ওপর তাদের আস্থা রয়েছে। “আশা করি, পরবর্তী নির্বাচন কমিশনার হিসেবে তারা ভালো প্রস্তাব নিয়ে জাতির সামনে উপস্থিত হবেন।”

একই আশা ব্যক্ত করে দ্য ডেইলি স্টার সম্পাদক ও প্রকাশক মাহফুজ আনাম বলেন, পরবর্তী নির্বাচন কমিশন তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্বগুলো সাহসিকতার সঙ্গে পালন করবেন।

সুশীল সমাজের অন্যতম সদস্য আইনজীবী রোকনউদ্দিন মাহমুদ এবং মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আব্দুল ওয়াদুদও গণমাধ্যমকে তাঁদের অভিমত জানান।

পরবর্তী নির্বাচন কমিশনার হিসেবে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পাঠানো নামের তালিকা বাছাই করার প্রেক্ষাপটে সুশীল সমাজের দ্বিতীয় দলটি আজ সার্চ কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করলেন। গত সোমবার সুশীল সমাজের ১২জন ব্যক্তি সার্চ কমিটির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ ৩১টি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলার পর ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি গঠন করেন। বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, সরকারি কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাদিক, মহা হিসাবনিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রক মাসুদ আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য শিরীণ আখতার।

উল্লেখ্য, প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ এ মাসেই শেষ হবে। এরপর নবগঠিত কমিশন পরবর্তী জাতীয় নির্বাচন আয়োজন করবে।

Click here to read the English version of this news

Comments