অপরাধ ও বিচার

নড়াইলে শিক্ষক লাঞ্ছিত: বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ হাইকোর্টের

নড়াইলে কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের গলায় জুতায় মালা পরানোর ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।
২১ আগস্ট, গ্রেনেড হামলা
ফাইল ছবি

নড়াইলে কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের গলায় জুতায় মালা পরানোর ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্ত পরিচালনার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

নড়াইলের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে এই তদন্ত পরিচালনার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং তাকে ৬ সপ্তাহের মধ্যে হাইকোর্টে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

নড়াইলের সদর উপজেলায় গত ১৭ জুন শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা মির্জাপুর ইউনাইটেড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসের গলায় জুতার মালা পরিয়ে দেয়।

এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি আলোচনায় আসে।

আজ সোমবার সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে স্বপন কুমার বিশ্বাস ও তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা ও চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করতেও নির্দেশনা দিয়েছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে আদালত রুল দিয়ে জেলা প্রশাসন ও পুলিশকে ব্যাখ্যা দিতে বলেছেন, কেন 'মব জাস্টিস' ঠেকাতে তাদের ব্যর্থতাকে অবৈধ ঘোষণা করা হবে না।

মানবাধিকার সংস্থা আইন ও সালিশ কেন্দ্রের (আসক) একটি রিট আবেদনের ভিত্তিতে বিচারপতি বিশ্বদেব চক্রবর্তী ও বিচারপতি এসএম মনিরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিতে বেঞ্চ এই নির্দেশ ও রুল দেয়।

শুনানিতে বাদীপক্ষের আইনজীবী হিসেবে ছিলেন জেডআই খান পান্না ও আনিক আর হক এবং রাষ্ট্রপক্ষের প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস।

Comments