প্রবাসে

জাপানে সংকট মোকাবিলায় ২৭০ বিলিয়ন ডলারের প্রণোদনা প্যাকেজ

জাপানে ক্রমবর্ধমান দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি ও ইয়েনের দরপতনের কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।
জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা। ছবি: সংগৃহীত

জাপানে ক্রমবর্ধমান দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি ও ইয়েনের দরপতনের কারণে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকট মোকাবিলায় প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।

গত শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী কিশিদার সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে ৩৯ লাখ কোটি ইয়েন বা প্রায় ২৭০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের সমতুল্য এই প্যাকেজটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে জাপানের প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন ফুমিও কিশিদা। ওই সংবাদ সম্মেলনে করোনা ও ইউক্রেন যুদ্ধের প্রভাবে অর্থনৈতিক মন্দা কাটিয়ে ওঠার উদ্যোগ হিসেবে বিভিন্ন প্যাকেজের ঘোষণা দেন তিনি।

কিশিদা বলেন, সংকট মোকাবিলায় যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তা জিডিপির ৪.৬ শতাংশ। দেশে বিদ্যুৎ বিল বাড়ছে এবং সরকার তা প্রায় ২০ শতাংশ কমাতে চায়। আগামী জানুয়ারি থেকে প্রতি কিলোওয়াট/ঘণ্টার জন্য ৭ ইয়েন ভর্তুকি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে সরকার। এজন্য সরকারের ৩০ ট্রিলিয়ন ইয়েন বা ২০৪ কোটি ডলার অতিরিক্ত ব্যয় হবে।

তিনি আরও বলেন, সরকার সিটি গ্যাস নিয়েও পরিকল্পনা করছে। পরিবার বা ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে ব্যবহৃত গ্যাসের প্রতি ঘনমিটারে ৩০ ইয়েন ভর্তুকি দেওয়ার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। পাশাপাশি ডিজেলের দামও কমিয়ে আনা হবে।

এ ছাড়াও, পরিবার প্রতি ৪৫ হাজার ইয়েন এবং যেসব পরিবারে শিশু আছে সেসব পরিবারকে ১ লাখ ইয়েন করে দেওয়া হতে পারে বলে উল্লেখ করেন কিশিদা।

কিশিদা জানান, পর্যটন খাতে অভ্যন্তরীণ ভ্রমণের ক্ষেত্রে পরিবার প্রতি ৪৫ হাজার ইয়েন ভর্তুকি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে সরকার। এই অর্থনৈতিক প্যাকেজের তহবিল সংগ্রহে সম্পূরক বাজেট প্রণয়ন দরকার হবে। আগামী মাসে সেই বাজেট পরিকল্পনাও করছে সরকার। যেন পার্লামেন্টের বর্তমান অতিরিক্ত অধিবেশনে এটির অনুমোদন নেওয়া যায়।

Comments