অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের মাতৃভাষা দিবস পালন

অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে সিডনির ধানসিঁড়ি ফাংশন সেন্টারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের আলোচনা সভা। ছবি: সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে সিডনির ধানসিঁড়ি ফাংশন সেন্টারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মোহাম্মদ আব্দুল মতিনের সভাপতিত্বে গত বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এই সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম।

সভার শুরু হয় পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ থেকে পাঠ এবং বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত পরিবেশন দিয়ে। এরপর অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য সাদ্দাম খানের অকাল মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয় এবং ভাষা আন্দোলনে নিহতদের জন্য দোয়া প্রার্থনা করা হয়।

অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য কলাম লেখক ড. রতন কুণ্ডু সংগঠনের প্রেক্ষাপট, অস্ট্রেলিয়ায় আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক ইতিহাস তুলে ধরে সূচনা বক্তব্য রাখেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জিয়াউল কবির জিয়ন, হাজী মো. দেলোয়ার হোসেন, বেলাল হোসেন ঢালী ও এসএম দিদার হোসেন।

সিডনির বিশিষ্টজনদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মিলি ইসলাম, ড. রফিকুল ইসলাম, নির্মল পাল, একেএম ফজলুল হক শফিক, নির্মাল্য তালুকদার, মোহাম্মদ আলী সিকদার, জাকারিয়া আল মামুন স্বপন প্রমুখ।

বিশেষ অতিথি বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি ড. মো. সিরাজুল হক আলোকপাত করেন, বঙ্গবন্ধু একটি সাম্প্রদায়িক দেশকে অসাম্প্রদায়িক মন্ত্রে উদ্বুদ্ধ করে পুরো জাতিকে একত্র করে কীভাবে বাঙালি জাতীয়তাবাদের উন্মেষ ঘটিয়েছেন এবং ভাষা আন্দোলনে তার অবদান।

প্রধান অতিথি আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম সবাইকে আহ্বান জানান বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক মন্ত্রে উদ্বুদ্ধ হতে।

আকিদুল ইসলাম: অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী লেখক, সাংবাদিক

Comments