প্রবাসে

২০২৩ সালে কুয়েত থেকে ৪২ হাজার প্রবাসীকে ফেরত পাঠানো হয়েছে

এই নীতি বাস্তবায়নের পর থেকে নির্বাসন বিভাগে এটি সর্বোচ্চ সংখ্যা। তবে কোন দেশের কতজন সেটা উল্লেখ করেনি কর্তৃপক্ষ।
কুয়েতে প্রবাসী নাগরিক। ছবি: সংগৃহীত
কুয়েতে প্রবাসী নাগরিক। ছবি: সংগৃহীত

২০২৩ সালে কুয়েতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ৪২ হাজারেরও বেশি প্রবাসীকে দেশটি থেকে নির্বাসন দিয়েছে।

এই নীতি বাস্তবায়নের পর থেকে নির্বাসন বিভাগে এটি সর্বোচ্চ সংখ্যা। তবে কোন দেশের কতজন সেটা উল্লেখ করেনি কর্তৃপক্ষ।

২০২২ সালে প্রায় ২১ হাজার প্রবাসীদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়। ২০২৩ সালে সংখ্যাটি প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। কুয়েতের উপ-প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ তালাল আল-খালেদের নির্দেশনায় এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

করোনার পর থেকে আবাসিক ও শ্রম আইন লঙ্ঘনের কারণে কঠোর অবস্থানে রয়েছে কুয়েত। প্রতিদিন আবাসিক আইন লঙ্ঘনের কারণে অসংখ্য প্রবাসীকে গ্রেফতার করছে দেশটির আইন প্রয়োগকারী সংস্থা। কুয়েতের চলমান এ নিরাপত্তা অভিযান আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, এটি কুয়েত সরকারের বৃহত্তর উদ্যোগের অংশ। জনসংখ্যায় সামঞ্জস্য আনার পাশাপাশি আবাসিক ও শ্রম আইন লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়াই হলো এই উদ্যোগের প্রধান লক্ষ্য।

 

Comments