বাণিজ্য

জাপানি বিনিয়োগকারীদের শ্রীলঙ্কায় ফিরে আসার ডাক

গত প্রায় ৪ বছরের মধ্যে প্রথম কোনো উচ্চপর্যায়ের সফরে শ্রীলঙ্কায় আসা জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়োশিমাসা হায়াশিকে দ্বীপদেশটিতে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন কলম্বো।
শ্রীলঙ্কা
কলম্বোয় জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়োশিমাসা হায়াশি ও শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি সাবরি। ২৯ জুলাই ২০২৩। ছবি: রয়টার্স

সংকট-পীড়িত দ্বীপদেশ শ্রীলঙ্কায় বিনিয়োগে আবার ফিরে আসার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনৈতিক শক্তি জাপানকে।

গত প্রায় ৪ বছরের মধ্যে প্রথম কোনো উচ্চপর্যায়ের সফরে শ্রীলঙ্কায় আসা জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়োশিমাসা হায়াশিকে দ্বীপদেশটিতে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন কলম্বো।

গতকাল শনিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিন কলম্বোয় সংবাদ সম্মেলনে শ্রীলঙ্কার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি সাবরি বলেন, 'জ্বালানি, অবকাঠামো ও অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোয় বিনিয়োগের পাশাপাশি পরিবেশবান্ধব ও ডিজিটাল অর্থনীতি খাতে জাপানের বিনিয়োগ আশা করছে শ্রীলঙ্কা।'

তিনি আরও বলেন, 'শ্রীলঙ্কার অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে। এ বিষয়ে আমরা আশাবাদী। আমাদের অগ্রগতি জাপান-শ্রীলঙ্কা সম্পর্ককে আরও শক্তিশালী করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।'

জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়োশিমাসা হায়াশি ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা, উগান্ডা, ইথিওপিয়া ও মালদ্বীপ সফরের অংশ হিসেবে শ্রীলঙ্কায় এসেছেন। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আশা করেন যে, শ্রীলঙ্কা আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) থেকে নেওয়া ঋণের সুষ্ঠু ব্যবহার করবে। তবে শ্রীলঙ্কায় জাপানি বিনিয়োগের আহ্বান প্রসঙ্গে তিনি সরাসরি কোনো মন্তব্য করেননি।

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে জাপানের দীর্ঘদিনের সুসম্পর্ক ২০২০ সালে হঠাৎ শীতল হতে শুরু করে। সে বছর কলম্বো প্রায় ২ বিলিয়ন ডলারের রেলওয়ে প্রকল্প একতরফা বাতিল করে দেয়।

সাম্প্রতিক সময়ে শ্রীলঙ্কা অর্থ ও রাজনৈতিক সংকটে পড়লে দেশটির প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহে জাপানের কাছে সহায়তা চান। এরপর থেকে দেশ ২টির সম্পর্ক একটু একটু করে উন্নত হতে শুরু করে।

চলতি মাসে প্রেসিডেন্ট বিক্রমাসিংহে রেল প্রকল্পটির বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদের অনুমোদন নিয়েছেন।

সংবাদ প্রতিবেদনে বলা হয়, শ্রীলঙ্কাকে ঘিরে একদিকে জাপান ও ভারত এবং অন্যদিকে চীনের মধ্যে রেষারেষি চলছে।

চীনের পর জাপান দক্ষিণ এশিয়ার দ্বীপদেশটিকে সবচেয়ে বেশি ঋণ দিয়েছে। দেশটির অর্থমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুসারে, সেখানে জাপানের ঋণ প্রায় ২ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলার। শ্রীলঙ্কাকে ঋণ দেওয়া দেশের তালিকায় ভারতের অবস্থান তৃতীয়।

Comments