বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

গ্যাস সঞ্চালন চার্জ ১১৭ শতাংশ ও বিতরণ চার্জ ৬৩ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ল

প্রাকৃতিক গ্যাসের সঞ্চালন ও বিতরণ চার্জ বাড়িয়েছে সরকার। গত জানুয়ারিতে গ্যাসের দাম বাড়ানো হলেও চলতি জুলাই মাস থেকে সঞ্চালন ও বিতরণ কোম্পানিগুলোর জন্য বাড়তি এই চার্জ নির্ধারণ করলো সরকার।
ভোলায় গ্যাসক্ষেত্র। স্টার ফাইল ছবি

প্রাকৃতিক গ্যাসের সঞ্চালন ও বিতরণ চার্জ বাড়িয়েছে সরকার। গত জানুয়ারিতে গ্যাসের দাম বাড়ানো হলেও চলতি জুলাই মাস থেকে সঞ্চালন ও বিতরণ কোম্পানিগুলোর জন্য বাড়তি এই চার্জ নির্ধারণ করলো সরকার।

ভোক্তা পর্যায়ে গ্যাসের মূল্য থেকেই এই চার্জ কাটা হয়। আগে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন ভোক্তা পর্যায়ে দামের পাশাপাশি কোম্পানিগুলোর মাসুলও নির্ধারণ করে দিতো। কিন্তু গত ১৮ জানুয়ারি সরকার নতুন আইনে নির্বাহী আদেশে গ্যাসের দাম বাড়ায়, যা ফেব্রুয়ারিতে কার্যকর হয়।

সরকারি ও বেসরকারি বিদ্যুৎকেন্দ্র, শিল্পক্ষেত্র, হোটেল, রেস্টুরেন্ট ও অন্যান্য বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে সরবরাহ করা গ্যাসের দাম বাড়ে ১৪ দশমিক ৪৯ শতাংশ থেকে সর্বোচ্চ ১৭৮ দশমিক ৮৮ শতাংশ পর্যন্ত।

আজ বৃহস্পতিবার এক আদেশে সঞ্চালন চার্জ প্রায় ১১৭ শতাংশ ও বিতরণ চার্জ ৫৭ থেকে ৬৩ শতাংশ পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার।

নতুন আদেশ অনুযায়ী, সঞ্চালন চার্জ প্রতি ঘনমিটার গ্যাসে ৪৭ পয়সা থেকে বেড়ে ১ টাকা ২ পয়সা করা হয়েছে। বিতরণ কোম্পানিগুলোর মধ্যে তিতাস প্রতি ঘনমিটারে পাবে ২১ পয়সা, যা ২০২২ সালে বিইআরসি নির্ধারণ করে দিয়েছিল ১৩ পয়সা।

অন্য বিতরণ কোম্পানিগুলো- বাখরাবাদ, কর্ণফুলী, জালালাবাদ, পশ্চিমাঞ্চল ও সুন্দরবনের নতুন চার্জ যথাক্রমে ৩০ পয়সা, ৩৭ পয়সা, ১৮ পয়সা, ২৬ পয়সা ও ২৪ পয়সা।

Comments