ইউক্রেন ক্লাস্টার বোমা ব্যবহার করলে রাশিয়াও করবে: পুতিন

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, রাশিয়ার কাছে ক্লাস্টার বোমার ‘পর্যাপ্ত মজুত’ রয়েছে। ইউক্রেন যদি রুশ বাহিনীর ওপর ক্লাস্টার বোমা ফেলে তাহলে মস্কোও এ ধরনের যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহারের অধিকার রাখে।  
ভ্লাদিমির পুতিন | রয়টার্স  ফাইল ফটো
ভ্লাদিমির পুতিন | রয়টার্স ফাইল ফটো

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, রাশিয়ার কাছে ক্লাস্টার বোমার 'পর্যাপ্ত মজুত' রয়েছে। ইউক্রেন যদি রুশ বাহিনীর ওপর ক্লাস্টার বোমা ফেলে তাহলে মস্কোও এ ধরনের যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহারের অধিকার রাখে।  

রয়টার্স জানায়, গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ক্লাস্টার বোমার চালান পাওয়ার দাবি করেছে ইউক্রেন। 

পাল্টা আক্রমণে যাওয়া ইউক্রেনের গোলাবারুদ ঘাটতি পূরণে এ ধরনের যুদ্ধাস্ত্র দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বিস্তৃত অঞ্চলে নির্বিচারে হত্যাযজ্ঞ চালাতে পারে বিধায় ১০০টিরও বেশি দেশে ক্লাস্টার যুদ্ধাস্ত্র নিষিদ্ধ।

তবে ইউক্রেন বলছে যে, নিজ ভূখণ্ডের দখল ফিরিয়ে নিতে শত্রু সেনাদের ওপর তারা ক্লাস্টার বোমা ব্যবহার করবে। রাশিয়ার ভূখণ্ডে ব্যবহার করবে না।

পুতিন রাষ্ট্রীয় টিভিকে বলেছেন, প্রয়োজনে মস্কো সাড়া দেবে।

তিনি বলেন, 'আমি বলতে চাই যে, রাশান ফেডারেশনের কাছে বিভিন্ন ধরনের ক্লাস্টার বোমার পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। আমরা এখনো সেগুলো ব্যবহার করিনি। তবে আমাদের বিরুদ্ধে ক্লাস্টার বোমা ব্যবহৃত হলে আমরাও এ ধরনের যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহারের অধিকার রাখি।' 

তবে পুতিন জানান যে, তিনি ক্লাস্টার বোমার ব্যবহারকে অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করেন এবং অতীতে গোলাবারুদ ঘাটতিতে পড়া সত্ত্বেও মস্কো  
এ ধরনের যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহারের প্রয়োজন বোধ করেনি।

Comments