ভারত

উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠকে দুর্যোগপ্রবণ ঘোষণা, সরানো হলো ৬৮ পরিবার

ভারতের উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠকে দুর্যোগপ্রবণ ঘোষণা করা হয়েছে বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এখানকার বাড়িঘর ও রাস্তায় ফাটল দেখা দেওয়ায় কর্তৃপক্ষ অনেক পরিবারকে সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছে।
জোশীমঠ, ভারত, উত্তরাখণ্ড,
জোশীমঠের বাড়িঘর ও রাস্তায় ফাটল দেখা দিয়েছে। ছবি: এএফপি

ভারতের উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠকে দুর্যোগপ্রবণ ঘোষণা করা হয়েছে বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এখানকার বাড়িঘর ও রাস্তায় ফাটল দেখা দেওয়ায় কর্তৃপক্ষ অনেক পরিবারকে সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছে।

চামোলির জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হিমাংশু খুরানা বলেন, শহরটিকে দুর্যোগপ্রবণ ঘোষণা করা হয়েছে এবং পরিস্থিতি মূল্যায়নে ২টি কেন্দ্রীয় দল শিগগিরি সেখানে পৌঁছাবে। জলশক্তি মন্ত্রণালয়ের একটি দলসহ কেন্দ্রীয় সরকারের ২টি দল এখানে আসছে। জোশীমঠ এবং আশেপাশের এলাকায় নির্মাণ কার্যক্রম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে শুকনো রেশনসামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শহরের শত শত ভবন ও রাস্তায় ফাটল দেখা দেওয়ায় ৬৮টি পরিবার সাময়িকভাবে বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিং ধামি সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার এবং শহরটি বাঁচানোর আবেদন করেছেন। তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছেন এবং রাজ্য সরকারকে পূর্ণ সমর্থনের আশ্বাস দিয়েছেন।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের প্রাথমিক সুযোগ-সুবিধাসহ ত্রাণ ক্যাম্পে স্থানান্তর করা হয়েছে। জোশীমঠের ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য যে ত্রাণ ক্যাম্পের ব্যবস্থা করা হয়েছে সেগুলো প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিদর্শন করা হচ্ছে এবং ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরনের সহায়তা করা হচ্ছে।

জেলা প্রশাসন ভূমিধ্বস এলাকা থেকে বাসিন্দাদের অবিলম্বে সরিয়ে নেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছে।

প্রায় ১৭ হাজার মানুষের শহর জোশীমঠ। সেখানকার বাড়ি এবং রাস্তায় ফাটল দেখা দেওয়ার পরে অ্যালার্ম ঘণ্টা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে, কর্তৃপক্ষ জরুরি ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়েছে। উদ্বেগজনক এই পরিস্থিতির জন্য জলবিদ্যুৎ প্রকল্পসহ অপরিকল্পিত পরিকাঠামোকে দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

Comments