দুর্ঘটনা ও অগ্নিকাণ্ড

নৌকাডুবে নিহতদের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে দিলো ত্রাণ মন্ত্রণালয়

পঞ্চগড়ে করতোয়ায় নৌকাডুবিতে নিহতদের পরিবারকে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও শুকনো খাবারের প্যাকেট দিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।
করতোয়া
ত ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার মাড়েয়া ইউনিয়নের আউলিয়া ঘাটে নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। ছবি: সংগৃহীত

পঞ্চগড়ে করতোয়ায় নৌকাডুবিতে নিহতদের পরিবারকে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও শুকনো খাবারের প্যাকেট দিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

এ ছাড়াও, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতি পরিবারকে ৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে এই আর্থিক সহায়তা দেন।

এর আগে, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহত পরিবারগুলোকে শেষকৃত্যের জন্য নগদ ২০ হাজার টাকা করে এবং ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে নিহত প্রত্যেক পরিবারের জন্য ২৫ হাজার টাকা দেওয়া হয়।

নৌকাডুবির ঘটনায় এখনো ৩ জন নিখোঁজ আছেন। স্বজনরা এখনো তাদের অপেক্ষায় আছেন। 

তারা হলেন—দেবীগঞ্জের ছত্র শিকারপুর হাতিডুবা গ্রামের ভূপন চন্দ্র বর্মণ (৪০), বোদা উপজেলার সাকোয়া গ্রামের সুরেন চন্দ্র বর্মণ (৬৫) ও পঞ্চগড় সদর উপজেলার ঘাটিয়ারপাড়ার জয়া রানী (৪)।

এ ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক ও পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দীপঙ্কর রায় গতকাল দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

গত রোববার দুপুরে পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় করতোয়া নদীতে আউলিয়া ঘাটে শতাধিক যাত্রী নিয়ে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা ডুবে যায়। দুর্ঘটনায় পড়া যাত্রীরা মহালয়ার অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বদেশ্বরী মন্দিরে যাচ্ছিলেন।

নৌকাডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৬৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পঞ্চগড়ের বোদা ও দেবীগঞ্জ এবং দিনাজপুরের খানসামা ও বীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে এসব মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। 

পরিদর্শন শেষে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্সে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, 'দেশের কোথাও নৌকাডুবির ঘটনায় এক সঙ্গে এত মানুষ মারা যায়নি। প্রধানমন্ত্রী এই ঘটনায় মানবিক ও আন্তরিকতার সঙ্গে শুরু থেকেই বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে মানবিক সাহায্য নিয়ে এসেছি।'

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সকাল থেকে সেখানে অবস্থান করার পরও কীভাবে এমন ঘটনা ঘটল, এমন প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, 'এক্ষেত্রে কারো অবহেলা থাকলে এবং তদন্তের মাধ্যমে দোষী সাব্যস্ত হলে, তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

অপর প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম জানান, আউলিয়ার ঘাট পয়েন্টে করতোয়া নদীর ওপর আগামী বছরের মধ্যে সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হবে। সেতু নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের পর ইতোমধ্যে বিলটি একনেকে পাস হয়েছে।

Comments