নারায়ণগঞ্জে গৃহবধূকে আটকে রেখে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গৃহবধূকে (৩১) দুদিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গৃহবধূকে (৩১) দুদিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার যুবকের নাম রঞ্জিত হাওলাদার (৩৫)। তার বাড়ি পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ থানার পূর্ব সুবিধাখালীতে।

আজ শুক্রবার বিকেলে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক দিপু দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, 'গত বৃহস্পতিবার রাতে ফতুল্লা রেললাইন বটতলা এলাকা থেকে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই এলাকার একটি বাসা থেকে ওই নারীকেও উদ্ধার করে পুলিশ। ভিক্টিম শুক্রবার সকালে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা করেছেন।'

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, ওই নারীর শ্বশুরবাড়ি পটুয়াখালীতে। চলতি বছরের ২০ মার্চ অসুস্থ হয়ে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। হাসপাতালে থাকার সময় রক্তের প্রয়োজন ছিল বাদীর। ওই সময় রক্তদান করা একটি সংগঠনের মাধ্যমে অভিযুক্ত রঞ্জিত হাওলাদার বাদীকে রক্ত দেন। এরপর অভিযুক্ত বাদীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে প্রায়সময় তাকে উত্যক্ত করতো। এ কারণে ওই নারীর তিন সন্তান নিয়ে সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বাবা-মার কাছে চলে আসেন। তার স্বামী কাজের সুবাদে যশোর থাকেন।

মামলায় বলা হয়েছে, গত ২১ সেপ্টেম্বর বিকেল ৫টার দিকে ওই নারীকে কৌশলে একটি বাসায় নিয়ে দুদিন আটকে রেখে তাকে ধর্ষণ করে রঞ্জিত।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক গোলাম মোস্তফা বলেন, 'ভিক্টিম থানায় এসে অভিযোগ জানালে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে আটক করা হয়। পরে ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে তোলা হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।'

Comments