বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ইউনুছ আলী গ্রেপ্তার

বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি খন্দকার মো. ইউনুছ আলীকে (৩৬) ১০ বছর পর নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-২।
ইউনুছ আলী
বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি খন্দকার মো. ইউনুছ আলীকে নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-২। ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি খন্দকার মো. ইউনুছ আলীকে (৩৬) ১০ বছর পর নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-২।

আজ মঙ্গলবার সকালে র‌্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-২ এর দল গত ৩১ অক্টোবর রাত ১১টা ৪০ মিনিটে নারায়ণগঞ্জের কেল্লাপুর এলাকা থেকে ইউনুছ আলীকে গ্রেপ্তার করে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি স্বীকার করে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এতে আরও বলা হয়, ২০১২ সালের ৯ ডিসেম্বর রাজধানীর বাহাদুর শাহ পার্কের পাশে দর্জি দোকানের কর্মচারী বিশ্বজিৎ দাসকে দুর্বৃত্তরা নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করে।

হত্যা মামলায় (সূত্রাপুর থানার মামলা নং-০৮, তারিখ- ০৯/১২/২০১২, ধারা-১৪৩/৩০২/৩৪ পেনাল কোড) ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ২১ আসামিকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

বিচারিক কার্যক্রম শেষে ২০১৩ সালের ১৮ ডিসেম্বর তারিখে ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ সেই ২১ আসামির মধ্যে ৮ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও ১৩ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

খন্দকার মো. ইউনুছ আলী (৩৬) নিম্ন আদালতে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত হলেও পলাতক থাকে। ২০১৭ সালে হাইকোর্ট উক্ত মামলায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি খন্দকার মো. ইউনুছ আলীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের রায় বহাল রাখেন।

হাইকোর্টে রায় ঘোষণার সময়ও খোন্দকার ইউনুস আলী পলাতক ছিলেন।

Comments