অপরাধ ও বিচার
চট্টগ্রাম

‘ছিনতাইয়ের’ অভিযোগে গণপিটুনিতে নিহত, পরিচয় খুঁজছে পুলিশ

মোবাইল ছিনতাইয়ের অভিযোগে গণপিটুনিতে আহত এক কিশোর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। গত ২৫ জানুয়ারি বুধবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কিশোরের মৃত্যু হয়। তার বয়স আনুমানিক ১৭-১৮ বছর।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

মোবাইল ছিনতাইয়ের অভিযোগে গণপিটুনিতে আহত এক কিশোর চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। গত ২৫ জানুয়ারি বুধবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই কিশোরের মৃত্যু হয়। তার বয়স আনুমানিক ১৭-১৮ বছর।

তবে ৩দিন পেরিয়ে গেলেও নিহত ওই কিশোরের পরিচয় শনাক্ত করতে পারেনি পাঁচলাইশ থানা পুলিশ। 

এর আগে গত ২২ জানুয়ারি রাতে ষোলশহর কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন সেন্টারের পাশে নাসিরাবাদ হাউজিং সোসাইটির প্রবেশমুখের গলিতে ওই কিশোরকে ছিনতাইকারী সন্দেহে মারধর করেন ৭-৮ জন পথচারী। 
গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে আরেক পথচারী হাসপাতালে নেয়। 

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের পাঁচলাইশ মডেল থানার উপপুলিশ পরিদর্শক আফতাব হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ছিনতাইকারী সন্দেহে ওই কিশোরকে মারধর করা হলে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। আহত অবস্থায় ২৫ জানুয়ারি রাতে সে মারা যায়।'

'তাকে মোশাররফ নামের এক পথচারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। তার নাম-ঠিকানা জানা যায়নি। তবে আঙুলের ছাপ ও অনান্য মাধ্যমে তার পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে। কারা মারধর করেছে বা আদৌ ছিনতাইয়ের ঘটনা হয়েছিল কি না তা তদন্ত করছে পুলিশ', বলেন এসআই আফতাব।
 
আমরা গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার ছবি ব্যবহার করে তার পরিবারের খোঁজ পাওয়ার চেষ্টা করছি বলেও জানান তিনি। 

এই ঘটনায় পাঁচলাইশ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। 
 

Comments