আ. লীগের ২৯০ সংসদ সদস্যের শপথ গ্রহণ বৈধ: সুপ্রিম কোর্ট

অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ মেহেদী হাসান চৌধুরী দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘আওয়ামী লীগ জোটের ২৯০ জন সংসদ সদস্যের শপথ গ্রহণকে আবারও বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।’
high court
হাইকোর্টের ফাইল ফটো

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ জোটের ২৯০ জন সংসদ সদস্যের শপথ গ্রহণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ৪ বছর আগের করা লিভ টু আপিল আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

আজ মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে আপিল বিভাগের ৭ সদস্যের বেঞ্চ রিট আবেদনের ওপর আইনজীবীদের যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ মেহেদী হাসান চৌধুরী দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আওয়ামী লীগ জোটের ২৯০ জন সংসদ সদস্যের শপথ গ্রহণকে আবারও বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।'

তিনি আরও বলেন, '২৯০ জন সংসদ সদস্যের শপথ গ্রহণ ও দায়িত্ব গ্রহণে কোনো বেআইনি কিছু নেই বলে সুপ্রিম কোর্ট লিভ টু আপিল আবেদন খারিজ করে দিয়েছে।'

রিটকারীর আইনজীবী এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'খারিজ আদেশ পুনর্বিবেচনা চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করা হবে।'

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে এই সংসদ সদস্যরা নির্বাচিত হন।

২০১৯ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি এ বিষয়ে করা রিট আবেদন খারিজ হলে ওই বছর ২০ আগস্ট হাই কোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে লিভ টু আপিল আবেদন করা হয়। 

আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন এর আগে দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ২৯০ জন সংসদ সদস্যের শপথ গ্রহণ অসাংবিধানিক ছিল। তার কারণ দশম সংসদের মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারি।

সুতরাং, ২০১৯ সালের ৩ জানুয়ারি থেকে ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত দুটি সংসদ ছিল; যা অসাংবিধানিক। তিনি আরও বলেন, 'বিএনপির আইনপ্রণেতারা অনেক পরে শপথ নিয়েছেন।'

আদালতে আবেদনটি করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তাহেরুল ইসলাম তাওহিদ।

রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন।

 

Comments