অপরাধ ও বিচার
চট্টগ্রাম

৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ, যুবক আটক

চট্টগ্রামের চান্দগাঁও এলাকায় সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে।
Child rape logo
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

চট্টগ্রামের চান্দগাঁও এলাকায় সাত বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

আজ রোববার সকালে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই যুবককে আটক করে পুলিশ।

শিশুটির বাবা রিকশাচালক, মা পোশাক শ্রমিক। তারা চান্দগাঁও এলাকার একটি বস্তিতে থাকতেন। শিশুটি স্থানীয় একটি স্কুলে পড়ত।

নিহতের মরদেহ বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রাখা হয়েছে। সেখানে উপস্থিত শিশুর বাবা দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, সকাল ৭টার দিকে তিনি বাসা থেকে বেরিয়ে যান। পরে সোয়া ৯টার দিকে খবর পান মেয়েকে বাসায় মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।   

তিনি জানান, বাসায় গিয়ে মেয়েকে বিছানায় শোয়ানো অবস্থায় পান। তখন প্রতিবেশীরা জানান, শিশুটির হাত-পা বাঁধা এবং তার গলায় কালো দাগ ছিল।
 
নিহতের বাবা আরও জানান, তার চাচাতো বোন পাশেই থাকেন এবং তিনি শিশুটিকে দেখতে তাদের বাসায় গেলে দরজা বন্ধ পান। পরে প্রতিবেশীদের নিয়ে দরজা খুললে এক যুবক দৌড়ে পালিয়ে যায়। 

হাসপাতালের লাশঘরের সামনে কান্নারত শিশুর বাবা ডেইলি স্টারকে বলেন, '১৪ মাস আগে ভাগ্য বদলাতে এই শহরে এসেছিলাম। এখন আমার সব শেষ।'

চান্দগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিয়াদুস সালেহীন ডেইলি স্টারকে বলেন, 'স্থানীয়রা ওই যুবককে ধাওয়া করলে সে পুকুরে ঝাঁপ দেয়। পরে তাকে আটক করে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য সিএমএইচে নিয়ে যাওয়া হয়।'

'প্রাথমিকভাবে সন্দেহ করছি যে, শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত বলা যাবে', যোগ করেন তিনি।

Comments