বিচারপতিকে কটূক্তি: আত্মসমর্পণের পর কারাগারে দিনাজপুরের পৌর মেয়র

বিচারপতিকে কটূক্তি করায় দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে এক মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয় আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা; অনাদায়ে আরও সাত দিনের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।
Dinajpur Map
স্টার ডিজিটাল গ্রাফিক্স

ইউটিউব ভিডিওতে বিচারপতিকে নিয়ে কটূক্তির মামলায় দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র ও রংপুর বিভাগীয় বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম আদালতে আত্মসর্পন করলে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেয় আদালত।

আজ বুধবার সাড়ে ১২টার দিকে মেয়র জাহাঙ্গীর আলম দিনাজপুর কোর্টে হাজির হলে এ আদেশ দেওয়া হয়।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, উচ্চ আদালতের নির্দেশে দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম আজ দিনাজপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠান এবং একইসঙ্গে ১ লাখ টাকা জরিমানার আদেশ দেয়।

এর আগে গত ১২ তারিখে বিচারপতিকে কটূক্তি করায় দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে এক মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেয় আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে তাকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়; অনাদায়ে আরও সাত দিনের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়।

প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ রায় দেন।

৭ দিনের মধ্যে তাকে দিনাজপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করতে নির্দেশ দেয় আপিল বিভাগ।

এক ইউটিউব ভিডিওতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রায় প্রসঙ্গে বিচারপতি এম এনায়েতুর রহিমকে নিয়ে মন্তব্য করেন মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। এরপর তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ উঠে।

বিএনপি নেতা মেয়র জাহাঙ্গীর ২০১১ সালে প্রথমবার দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হন।

এ বিষয়ে আদালতের পক্ষ থেকে কোনো বক্তব্য না পাওয়া গেলেও দিনাজপুর জেলা বিএনপির সভাপতি মোফাজ্জল হোসেন দুলাল দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

Comments