নাটোর

মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে কক্ষের দরজা বন্ধ করে পেটাল ‘এমপির লোক’

দুপুরের দিকে হামলাকারীরা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ে ঢুকে কক্ষের দরজা বন্ধ করে দিয়ে মারধর করে ও কিছু ফাইলপত্র ছিঁড়ে ফেলে বলে অভিযোগ শিক্ষা কর্মকর্তার।
মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে মারধর
মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে মারধরের পর কার্যালয় থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে হামলাকারীরা। ছবি: সিসিটিভি ফুটেজ থেকে নেওয়া

নাটোরের বড়াইগ্রামে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে নিজ কার্যালয়ে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। 'এমপির লোক' পরিচয় দেওয়া হামলাকারীরা কার্যালয়ের আসবাবপত্রও ভাঙচুর করেছে। 

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বড়াইগ্রামে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের ওপর এ হামলা হয়। এ ঘটনায় রাত ৮টার দিকে একটি মামলা করেছেন তিনি।

জানতে চাইলে শিক্ষা অফিসার মো. আব্দুর রউফ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'অপরিচিত ১০-১২ জন দুপুরে আমার অফিস কক্ষে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দিয়ে গালিগালাজ করে। পরে তারা আমাকে কিলঘুষি মারে এবং কিছু ফাইলপত্র ছিঁড়ে ফেলে।'

'পরে জানতে পারি ইসলামপুর ফাজিল মাদ্রাসার নিয়োগ নিয়ে তারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আমি এ নিয়োগের সঙ্গে কোনোভাবেই জড়িত নই,' বলেন তিনি।

কারা হামলা করেছে জানতে চাইলে মো. আব্দুর রউফ বলেন, 'হামলাকারীরা নিজেদের এমপির লোক বলে পরিচয় দিয়েছে। স্থানীয়দের সহায়তায় হামলাকারীদের মধ্যে জামাল উদ্দিন, রুবেল বালী, জহির উদ্দিন ও শামসুদ্দিনকে প্রাথমিকভাবে চিহ্নিত করা গেছে।'

যোগাযোগ করা হলে বড়াইগ্রামের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু রাসেল ডেইলি স্টারকে বলেন, 'উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা গবেষণা কর্মকর্তা ফোনে জানান যে শিক্ষা অফিসার আব্দুর রউফের কক্ষে কয়েকজন ঢুকে দরজা বন্ধ করে দিয়েছে। খবর পেয়েই এসিল্যান্ডকে এবং পুলিশ পাঠানো হয়। কিন্তু ততক্ষণে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।'

সিসিটিভি ফুটেজ দেখে হামলাকারীদের চিহ্নিত করা যাবে বলে জানান তিনি।

জানতে চাইলে বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সরল মরমু ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ভুক্তভোগী শিক্ষা অফিসার ৫ জনের নামে এবং আরও ৩৫ জন অজ্ঞাত আসামির বিরুদ্ধে সরকারি কর্মকর্তাকে মারধর এবং ভয়ভীতি দেখানোর মামলা করেছেন।'

আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে বলে জানান তিনি।

'এমপির লোক' পরিচয়ে শিক্ষা অফিসারের ওপর হামলার বিষয়ে মন্তব্য জানতে নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীর সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আমি এখন ঢাকায় অবস্থান করছি। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারের ওপর হামলার খবর পেয়েছি। হামলাকারীদের সঙ্গে আমার কোনো সম্পর্ক নাই।' 

'প্রতিপক্ষের লোকজন আমার নামে প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছে,' দাবি সংসদ সদস্য সিদ্দিকুরের।

Comments

The Daily Star  | English

Finance is key to Bangladesh’s energy transition

Bangladesh must invest more in renewable energy and energy efficiency to reduce fossil fuel imports to reverse the increasing trajectory of the subsidy burden.

9h ago