দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন
খুলনা-৫

আমাকে তোরা চিনিস না, দুটি গুলি করলেই যথেষ্ট: স্বতন্ত্র প্রার্থী আকরাম

বক্তব্যের এক পর্যায়ে তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও সাবেক মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দর কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে হুমকি দেন...

নির্বাচনী প্রচারণায় প্রতিপক্ষের কর্মী-সমর্থকদের হুমকি দিয়ে খুলনা-৫ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ আকরাম হোসেন বলেছেন, 'আমাকে চিনিস না। তোদেরকে এমন কাজ করব নারান বাবু (আওয়ামী লীগ প্রার্থী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ) কেন, তোদের বাপও ঠেকাতে পারবে না। দুটি গুলি করলেই যথেষ্ট।'

গতকাল মঙ্গলবার রাতে ডুমুরিয়ার মিকশিমিল মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে পথসভায় বক্তব্য দেওয়ার সময় এ হুমকি দেন তিনি।

শেখ আকরাম হোসেন ফুলতলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান।

পথসভায় বক্তব্য রাখার সময় গুলি করার হুমকি দেওয়ার একটি  ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পরেছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, বক্তব্যের এক পর্যায়ে তিনি আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও সাবেক মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দর কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে এমন হুমকি দিচ্ছেন।

ফুলতলা উপজেলা চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ঈগল প্রতীক নিয়ে ডুমুরিয়া ও ফুলতলা নিয়ে গঠিত খুলনা-৫ আসনে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচন করছেন শেখ আকরাম হোসেন।

ঋণখেলাপির দায়ে আকরাম হোসেনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেছিলেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। নির্বাচন কমিশন এবং হাইকোর্টেও এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকে। পরে চেম্বার আদালত তাকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সুযোগ দেন।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের এমন হুমকি দেওয়ার বিষয়ে জানতে শেখ আকরাম হোসেনকে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি। টেক্সট করা হলেও তিনি কোনো উত্তর দেননি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে খুলনার রিটার্নিং কর্মকর্তা ও খুলনা জেলা জেলা প্রশাসক খন্দকার ইয়াসির আরেফিন বলেন, 'বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। ওই ভিডিও ফুটেজটি নির্বাচন কমিশন কর্তৃক গঠিত ইলেক্ট্ররাল কমিটিতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পাঠানো হয়েছে।'

Comments