১ শতাংশ ভোট পড়লেও লিগ্যালি নির্বাচন সঠিক: সিইসি

‘এটা আমাদের দায়িত্ব না যে কাউকে নির্বাচনে নিয়ে আসা।’
cec_habib1.jpg
কাজী হাবিবুল আউয়াল। ফাইল ছবি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, 'আমাদের দেশে যদি এক শতাংশ ভোট পড়ে, ৯৯ শতাংশ না পড়ে, তাহলে লিগ্যালি নির্বাচন সঠিক। প্রশ্ন উঠবে লেজিটিমেসি নিয়ে, লিগ্যালিটি নিয়ে নয়। কাজেই লিগ্যালিটি এবং লেজিটিমেসি নিয়ে কনফ্লিক্ট আছে।'

আজ বুধবার নির্বাচন কমিশনা ভবনে এক ওয়ার্কশপে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সিইসি বলেন, 'আমরা ইনক্লুসিভ নির্বাচন পছন্দ করি। এটা আমাদের দায়িত্ব না যে কাউকে নির্বাচনে নিয়ে আসা। তবুও আমরা আমাদের নৈতিক অবস্থান থেকে অনেকবার দাওয়াত করেছি। বলেছি, আসুন, আমাদের সঙ্গে চা খান। ডিও লেটার পর্যন্ত লেখেছি। এর বেশি আমরা আর কিছু করতে পারছি না।'

তিনি আরও বলেন, 'আমরা নির্বাচনের লেজিটিমেসি নিয়ে মাথা ঘামাবো না। আমরা দেখবো ভোটটা অবাধ, নিরপেক্ষ, শান্তিপূর্ণ হয়েছে কি না। আমরা দেখব, যদি মাত্র এক শতাংশ লোকও ভোট দেয় তাহলে ভোটার যারা এসেছিলেন তাদেরকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়নি, ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়েছে এবং তারা নির্বিঘ্নে, স্বাধীনভাবে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।'

সিইসির ভাষ্য, 'লিগ্যালি একটা জিনিস হলে সেটা লিগ্যালি ভ্যালিড। কিন্তু লেজিটিমেসি একটি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস, যেখানে পারসেপশন তৈরি হয়। আমি ওই বিরোধে যেতে চাচ্ছি না। নির্বাচন কমিশন চেষ্টা করবে একটি ল' ফুল নির্বাচন করতে। আর রাজনৈতিক সমাজ লেজিটিমেসি নিয়ে ফাইট করবে। নির্বাচন কমিশন এই বিষয় নিয়ে ফাইট করবে না।'

বর্তমান সংসদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ২৯ জানুয়ারি। সংবিধান অনুযায়ী, সংসদের মেয়াদের শেষ ৯০ দিনের মধ্যে যেকোনো সময় জাতীয় নির্বাচন করতে হবে। ৯০ দিনের ক্ষণগণনা শুরু হবে ১ নভেম্বর।

Comments