বাংলাদেশ

দেশে ফিরেছেন তাকরিম, মাঝরাতে বিমানবন্দরে সংবর্ধনা

সৌদি আরবে আন্তর্জাতিক কোরআন তিলাওয়াত প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করা বাংলাদেশের সালেহ আহমাদ তাকরিম দেশে ফিরেছেন। 
বিমানবন্দর গেটে তাকরিমকে শুভেচ্ছা জানাতে ভিড় করেন বহু মানুষ। ছবি: সংগৃহীত

সৌদি আরবে আন্তর্জাতিক কোরআন তিলাওয়াত প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করা বাংলাদেশের সালেহ আহমাদ তাকরিম দেশে ফিরেছেন। 

বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ২টার দিকে তাকরিমকে বহনকারী ফ্লাইটটি রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। 

বিমানবন্দর গেটে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে ভিড় জমান বহু মানুষ।

এ ছাড়া শিগগিরই বড় পরিসরে সংবর্ধনা দেওয়ার কথা জানিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।

ছবি: সংগৃহীত

বুধবার রাতে মক্কার পবিত্র মসজিদুল হারামে ঘোষণা করা হয় সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের নাম। যেখানে ৫টি শাখায় ১১১টি দেশের ১৫৩ জন প্রতিযোগী অংশ নেন। প্রতিটি শাখায় ৩ জন করে মোট ১৫ জনকে পুরস্কৃত করা হয়েছে।

প্রতিযোগিতার চতুর্থ শাখায় (শুদ্ধ উচ্চারণসহ ১৫ পারা কোরআন মুখস্ত) তৃতীয় হয়েছেন বাংলাদেশের সালেহ আহমেদ তাকরিম। 

এ ছাড়া প্রতিযোগিতার অন্যান্য বিজয়ীরা হলেন, সৌদি আরব, বাহরাইন, মিশর, সুদান, কাজাখস্তান, মরক্কো, ইন্দোনেশিয়া, গ্যাম্বিয়া, লিবিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিক।

চতুর্থ শাখায় তৃতীয় অবস্থান অর্জন করায় তাকরিমের হাতে তুলে দেওয়া হয় ১ লাখ রিয়াল মূল্যমানের পুরস্কার, বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় অন্তত সাড়ে ২৭ লাখ টাকা।

টাঙ্গাইলের নাগরপুরের সন্তান তাকরিমকে শুভেচ্ছা জানাতে রাতেই বিমানবন্দরে হাজির হন অসংখ্য মানুষ। তার এই অর্জন দেশের জন্য বড় সম্মান বলে মন্তব্য করেন উপস্থিত জনগণ। 

সালেহ আহমেদ তাকরিমের বাবা আব্দুর রহমান জানান, ছোটবেলা থেকে পড়াশোনায় প্রচণ্ড মনযোগী তাকরিম। ছেলের জন্য দেশবাসীর জন্য দোয়া চেয়েছেন তিনি।

রাত ৩টার দিকে বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে আসে তাকরিম। এ সময় শুভেচ্ছা আর শ্লোগানে মুখরিত হয় চারপাশ।

এর আগে গত মার্চে ইরানে আন্তর্জাতিক হিফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছিলেন সালেহ আহমাদ তাকরিম।

Comments