হেনস্থার প্রতিবাদে ময়মনসিংহ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সংবাদ বর্জনের ঘোষণা

সাফজয়ী কলসিন্দুরের ৮ নারী ফুটবলারকে সংবর্ধনার সংবাদ সংগ্রহের সময় হেনস্থা ও হামলার প্রতিবাদে ক্রীড়া সংস্থা ও ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সব সংবাদ বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন ময়মনসিংহের ৯টি সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
যৌথসভায় ময়মনসিংহের ৯টি সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। ছবি: সংগৃহীত

সাফজয়ী কলসিন্দুরের ৮ নারী ফুটবলারকে সংবর্ধনার সংবাদ সংগ্রহের সময় হেনস্থা ও হামলার প্রতিবাদে ক্রীড়া সংস্থা ও ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সব সংবাদ বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন ময়মনসিংহের ৯টি সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

রোববার রাত ১০টার দিকে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত যৌথসভায় এই ঘোষণা দেওয়া হয়। 

সাংবাদিকরা জানান, গত ২৯ সেপ্টেম্বর সাফজয়ী ৮ ফুটবলারকে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের চুরখাই এলাকায় বরণ করা হয়। ওই সংবর্ধনায় যাওয়ার পথে ঢাকা ও ময়মনসিংহের বিভিন্ন চ্যানেলের সাংবাদিক ও ক্যামেরাপারসনদের সঙ্গে অসদাচরণ, গালমন্দ করেন জেলা ক্রীড়া সংস্থা এবং জেলা ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তা ও সহযোগীরা।

সে সময় বিভিন্ন চ্যানলে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের লাইভ সম্প্রচারের গাড়ি ভাঙচুরের চেষ্টা চালানো হয় বলেও অভিযোগ সাংবাদিকদের।

আগামীকাল সোমবার এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী, ক্রীড়ামন্ত্রী ও বাফুফে বরাবর স্মারকলিপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় সভায়।

এ বিষয়ে আজ ময়মনসিংহ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আতাউল করিম খোকনের সভাপতিত্বে যৌথসভায় ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বাবুল হোসেন, ময়মনসিংহ সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মীর গোলাম মোস্তফা, ময়মনসিংহ রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মোশারফ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, ময়মনসিংহ টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও বাংলাভিশনের স্টাফ রিপোর্টার অমিত রায়, সহসভাপতি মাছরাঙ্গা টিভির শরীফুজ্জামান টিটু, সাংবাদিক ক্রীড়া চক্রের সভাপতি নিয়ামুল কবীর সজল, ময়মনসিংহ টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটির সহ-সভাপতি কাজী মোস্তফা মুন্না, নিউজ চ্যানেল জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও এখন টিভির বিশেষ প্রতিনিধি হারুনুর রশীদ, সাধারণ সম্পাদক যমুনা টিভির ব্যুরো প্রধান এস এম হসাইন শাহীদ, প্রেসক্লাবের যুগ্ম-সম্পাদক আতাউর রহমান জুয়েল, ইয়ুথ জার্নালিস্ট ফোরামের সভাপতি ও  ডিবিসি নিউজের স্টাফ রিপোর্টার রাকিবুল হাসান রুবেল, সেক্রেটারি মইনউদ্দিন রায়হান ও দ্য ডেইলি স্টারের আমিনুল ইসলামসহ বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও স্থানীয় পত্রিকার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Comments