প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর ফর ডায়াবেটিস’ হলেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে 'গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর ফর ডায়াবেটিস' উপাধিতে ভূষিত করেছে আন্তর্জাতিক ডায়াবেটিস ফেডারেশন (আইডিএফ)।
প্রধানমন্ত্রী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে 'গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর ফর ডায়াবেটিস' উপাধিতে ভূষিত করেছে আন্তর্জাতিক ডায়াবেটিস ফেডারেশন (আইডিএফ)।

সোমবার সন্ধ্যায় পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে অনুষ্ঠিত বিশ্ব ডায়াবেটিস সম্মেলন ২০২২ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান আইডিএফের সদ্য নির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক আকতার হোসেনের কাছ থেকে এ সম্মাননা গ্রহণ করেন।

এ সময় ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, 'বাংলাদেশে শিশুসহ প্রায় ৮৫ লাখ এবং সমগ্র পৃথিবীতে প্রায় ৪২ কোটি মানুষ ডায়াবেটিস এবং এ সম্পর্কিত অন্যান্য জটিলতা নিয়ে আছেন।'

খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন এবং জনসচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'জনবান্ধব স্বাস্থ্যনীতির বাস্তবায়ন এবং সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে বাংলাদেশ ডায়াবেটিস প্রতিরোধ এবং নিয়ন্ত্রণে যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে। বাংলাদেশ সব ডায়াবেটিস রোগীদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছে এবং বিনামূল্যে ইনসুলিন সরবরাহ কার্যক্রমও শুরু করেছে।'

দেশব্যাপী ১ হাজার ৮০০টির বেশি কমিউনিটি ক্লিনিক ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে প্রশিক্ষিত চিকিৎসাকর্মীরা ডায়াবেটিস রোগীদের সেবা দিচ্ছে বলেও জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করে তারিক আহসান বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও নারীর ক্ষমতায়নে অগ্রাধিকার দিয়ে মানব উন্নয়নের মাধ্যমে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করে উন্নয়নশীল বিশ্বের জন্য একটি রোল মডেলে পরিণত হয়েছে।'

অনুষ্ঠানে আইডিএফের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক অ্যান্ড্রু বোল্টন, আইডিএফের অন্যান্য প্রতিনিধি এবং সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ডায়াবেটিস নিয়ে জীবনযাপনকারীদের জীবনমান উন্নয়নে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে সম্মানসূচক 'গ্লোবাল অ্যাম্বাসেডর ফর ডায়াবেটিস' উপাধি দেওয়া হয়। 

এ উপাধি পাওয়ার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২ বছরের জন্য বিশ্বব্যাপী ডায়াবেটিস নিয়ে জীবনযাপন করা মানুষের মুখপাত্র হলেন।

Comments

The Daily Star  | English

The bond behind the fried chicken stall in front of Charukala

For over two decades, a business built on mutual trust and respect between two people from different faiths has thrived in front of Dhaka University's Faculty of Fine Arts

8h ago