বাংলাদেশ

করোনাকালে ১৪ মাসে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ প্রবাসী দেশে ফিরেছেন

করোনাকালে ১৪ মাসে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ প্রবাসী দেশে ফিরেছেন বলে জাতীয় সংসদকে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ।
প্রতীকী ছবি

করোনাকালে ১৪ মাসে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ প্রবাসী দেশে ফিরেছেন বলে জাতীয় সংসদকে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

তিনি জানান, ২০২০ সালের এপ্রিল থেকে ২০২১ সালের মে পর্যন্ত ৪ লাখ ৪২ হাজার ৯০২ প্রবাসী দেশে ফেরত এসেছেন।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদ কিরণের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, বিদেশফেরত অভিবাসী কর্মীদের আর্থসামাজিক পুনর্বাসনের জন্য সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে গত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১৫ হাজার ৭০৬ জনকে ৪২৯ কোটি ৫৯ লাখ টাকা পুনর্বাসন ঋণ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ৫২ হাজার ৭৪ জনকে বিদেশে যাওয়ার জন্য স্বল্প সুদে ও সহজ শর্তে ১ হাজার ১০৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা অভিবাসন ঋণ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি সংসদকে জানান নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মধ্যে একমাত্র আলু ছাড়া বাকি সব কিছুর চাহিদা পূরণে বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়।

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার সংসদকে জানান, চলতি মাসের ৮ তারিখ পর্যন্ত দেশের সরকারি খাদ্য গুদামে ১৮ লাখ ৩৯ হাজার ৫১৩ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য মজুদ আছে।  সরকারি দলের সংসদ সদস্য আলী আজমের প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী জানান, এর মধ্যে ৩ লাখ ৬৮ হাজার ২৭৪ মেট্রিক টন গম, ১৪ লাখ ৭০ হাজার ৩২১ টন চাল এবং এক হাজার ৩৮১ টন ধান মজুদ আছে।

তিনি বলেন, চলতি অর্থবছরে ১০ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানির লক্ষ্যমাত্রা সরকারের রয়েছে। এর মধ্যে জি টু জি পদ্ধতিতে ভারত, ভিয়েতনাম ও মিয়ানমার থেকে ইতোমধ্যে ৭ লাখ ৩০ হাজার মেট্রিক টন চাল আমদানির কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

Comments