বাংলাদেশ

টেকনাফে ‘প্যাকেটজাত জুস খেয়ে’ হাসপাতালে গেলেন একই পরিবারের ৮ জন

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদার পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

কক্সবাজারের টেকনাফে দোকান থেকে কেনা প্যাকেটজাত জুস পান করে একই পরিবারের শিশুসহ ৮ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন।

তাদের সবাইকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদার পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী।

অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ব্যক্তিরা হলেন- পশ্চিম সিকদার পাড়ার আবু বক্করের মেয়ে নাসিমা আক্তার (১৮) ও সেলিনা (১৯), আবু বক্করের ভাই আব্দুর রহিমের মেয়ে রাফিয়া (৩), রাফসানা (৫), নাজমা (৯) ও ছেলে রামিম (৭) এবং জসিম উদ্দিনের ছেলে শাওন (২) ও মো. জালালের ছেলে জিসান (৩)।

হ্নীলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী জানান, রোববার সন্ধ্যায় আবু বক্করের বাড়িতে একজন আত্মীয় বেড়াতে আসেন। আসার সময় ওই অতিথি দোকান থেকে অন্য শুকনা খাবারের সঙ্গে বড় আকারের একটি জুসের প্যাকেটও কেনেন। পরে ওই প্যাকেটজাত জুস বাড়ির শিশুসহ অনেকে পান করেন। এর কিছুক্ষণ পরেই জুস খাওয়া সবাই অচেতন হয়ে পড়েন।

এই পরিবারের জহির আহমেদ বলেন, 'জুস খেয়ে অচেতন হয়ে পড়া সবাইকে হ্নীলার স্থানীয় একটি বেসরকারি ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) পরিচালিত হাসপাতালে পাঠান। পরে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও ) আশিকুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'রোববার রাত ১২ টার দিকে টেকনাফ থেকে অচেতন অবস্থায় শিশুসহ ৮ জনকে হাসপাতালে আনা হয়। এখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাদের জ্ঞান ফেরে। সবাই এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণে তাদের এমন অবস্থা হয়েছে।'

Comments