বাংলাদেশ
চট্টগ্রাম রেলওয়ে ইয়ার্ড

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানিকৃত নতুন ইঞ্জিনের যন্ত্রাংশ চুরি

গত ২৭ জুন আসা সবশেষ চালানের ইঞ্জিনের যন্ত্রাংশ চুরি হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন রেল কর্মকর্তারা।
সিজিপিওয়াই
চট্টগ্রামের রেলওয়ে পোর্টস গুডস ইয়ার্ড (সিজিপিওয়াই)। ছবি: সংগৃহীত

চালুর আগেই চট্টগ্রামের রেলওয়ে পোর্টস গুডস ইয়ার্ড (সিজিপিওয়াই) থেকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে সদ্য আমদানি করা নতুন রেল ইঞ্জিনের যন্ত্রাংশ চুরি হয়েছে।

এ ঘটনা তদন্তে ইতোমধ্যে একটি কমিটি গঠন করেছেন রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী (আরএনবি)।

আজ বৃহস্পতিবার আরএনবি পূর্বাঞ্চলের চিফ কমান্ড্যান্ট জহিরুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে যন্ত্রাংশ চুরির তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত সোমবার যন্ত্রাংশ চুরির বিষয়টি জানাজানি হলেও, কখন এ ঘটনা ঘটেছে তা জানাতে পারেননি রেলওয়ে কর্মকর্তারা।

আরএনবি কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম বলেন, 'সোমবার ইঞ্জিন ক্রয় প্রকল্পের পরিচালক চুরির বিষয়টি আমাকে জানান। এরপর আমরা একটি তদন্ত কমিটি গঠন করি।'

তিনি বলেন, 'প্রাথমিক তদন্তে আমরা ৩টি ইঞ্জিনের ক্যাবল চুরির সত্যতা পেয়েছি। এ ছাড়া অন্য কোনো যন্ত্রাংশ চুরি হয়েছে কি না, সেটি আমরা তদন্ত করে দেখছি।'

সরকার ও এডিবির যৌথ অর্থায়নে 'বাংলাদেশ রেলওয়ের রোলিং স্টক অপারেশন উন্নয়ন (রোলিং স্টক সংগ্রহ)' প্রকল্পের আওতায় ৪০টি ব্রডগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক (ডিই) লোকোমোটিভ যুক্তরাষ্ট্র থেকে ক্রয় করছে রেলওয়ে। 

ইতোমধ্যে ৩০টি লোকোমোটিভ দেশে চলে এসেছে। ৫টি ইঞ্জিনের চালান গত ২৭ জুন চট্টগ্রাম বন্দরে আসে। 

সবশেষ চালানের ইঞ্জিনের যন্ত্রাংশ চুরি হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন রেল কর্মকর্তারা।

প্রকল্পের পরিচালক মো. মিজানুর রহমান ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ইঞ্জিনগুলো পশ্চিমাঞ্চলে নেওয়ার প্রস্তুতিকালে যন্ত্রাংশ চুরির বিষয়টি দেখতে পান ইয়ার্ডে কর্মরতরা। আমরা বিষয়টি তদন্ত করছি।'

Comments