বাংলাদেশ

মৃত ঘোষণার পর নড়ে ওঠা শিশুটি হাসপাতালে ভর্তি, তদন্তে কমিটি গঠন

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নবজাতক ওয়ার্ডে তিন দিন বয়সী শিশুকে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মৃত ঘোষণা করা হয়। তবে বাড়ি ফেরার পথে শিশুটি নড়েচড়ে উঠলে বিকেলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। ছবি: সংগৃহীত

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নবজাতক ওয়ার্ডে তিন দিন বয়সী শিশুকে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মৃত ঘোষণা করা হয়। তবে বাড়ি ফেরার পথে শিশুটি নড়েচড়ে উঠলে বিকেলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মঙ্গলবার রাতে হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. জাকিউল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'শিশুটি বেঁচে আছে। তবে প্রিম্যাচিউরড হওয়ায় অবস্থা সংকটাপন্ন।'

নবজাতক ওয়ার্ডের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (এনআইসিইউ) তার চিকিৎসা চলছে বলে জানান তিনি। 

ডা. জাকিউল ইসলাম বলেন, 'শ্বাস-প্রশ্বাস না পাওয়ায় হয়তো শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেছেন চিকিৎসক। ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত কমিটি রিপোর্ট দেবে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

হাসপাতাল সূত্র ও নবজাতকের পরিবার জানায়, ত্রিশাল উপজেলার কানিহারী ইউনিয়নের বাড়মা গ্রামের সাইফুল ইসলামের স্ত্রী হালিমা খাতুন ৬ আগস্ট হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় সন্তানের জন্ম দেন। ওজন কম ও প্রিম্যাচিউরড হওয়ায় শিশুটিকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করে মৃত্যুর সনদপত্র দেওয়া হলে দুপুর ১২টার দিকে হাসপাতাল থেকে তারা বাড়ির দিকে রওনা হন। 

সিএনজি অটোরিকশায় হাসপাতাল থেকে বাড়ির পথে রওনা হলে পথে নবজাতক নড়েচড়ে ওঠে এবং জোরে শ্বাস নিতে শুরু করে। এ অবস্থায় তাকে আবার হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসেন বাবা। কর্তব্যরত চিকিৎসক নবজাতককে ওয়ার্ডে পাঠিয়ে দেন।

নবজাতক ওয়ার্ডের প্রধান চিকিৎসক মো. নজরুল ইসলাম বলেন, 'শিশুটিকে বর্তমানে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।'

Comments