‘মেয়েটা এখনো বাবার আশায় চাতক পাখির মতো চেয়ে থাকে’

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিএনপি-জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাস, সহিংস কর্মসূচি ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিচার দাবি করেছেন ভুক্তভোগীরা।
২৮ অক্টোবর নিহত পুলিশ সদস্য আমিরুল ইসলামের স্ত্রী রুমা আক্তার ও তার মেয়ে। ছবি: পলাশ খান/স্টার

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিএনপি-জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাস, সহিংস কর্মসূচি ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিচার দাবি করেছেন ভুক্তভোগীরা।

আজ রোববার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে 'মায়ের কান্না ও অগ্নিসন্ত্রাসের আর্তনাদ' শিরোনামে এ সভা হয়।

আলোচনা সভায় গত ২৮ অক্টোবর ঢাকায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত পুলিশ কনস্টেবল মো. আমিরুল ইসলাম পারভেজের স্ত্রী রুমা আক্তার বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন, 'ওর (পারভেজ) তো কোনো দোষ ছিল না, কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে জড়িত ছিল না, পেশাগত দায়িত্ব পালন করছিল।'

'আমার মেয়েটা এখনো তার বাবার আশায় চাতক পাখির মতো চেয়ে থাকে, আমাকে প্রশ্ন করে মা আব্বু কখন আসবে? চলো আমরা আব্বুকে নিয়ে আসি। কেউ যদি টাকা দেয় সে জমিয়ে রাখে, বলে- জানো এই টাকা দিয়ে কি করব? আমার আব্বুকে আল্লাহর কাছ থেকে কিনে আনব', যোগ করেন তিনি।
 
রুমা আক্তার প্রধানমন্ত্রীর কাছে তার স্বামী হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। 

আলোচনা সভায় ১৯৭৭ সালে জিয়াউর রহমানের আমলে বিমান বাহিনীর সদস্যদের গণফাঁসি, ২০০১ সালের নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা, ২০১৩ থেকে ১৫ সালসহ সাম্প্রতিক সময়ে অগ্নিসন্ত্রাসে নিহতদের পরিবারের সদস্য ও আহত ব্যক্তিরা অংশ নেন।

সভার শুরুতেই তথ্যচিত্রে ফুটিয়ে তোলা হয় রাজনীতির নামে নিরীহ মানুষের ওপর চালানো নির্মমতার চিত্র।

সভায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। তবে তারা কেউ বক্তব্য দেননি।

 

Comments