ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মামলায় সম্ভবত আইনের অপব্যবহার হয়েছে: যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, আইনের অপব্যবহার আইনের শাসনকে বাধাগ্রস্ত করার পাশাপাশি ভবিষ্যতে বাংলাদেশে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগকে বাধাগ্রস্ত করতে পারে।
ড. মুহাম্মদ ইউনূস
ড. মুহাম্মদ ইউনূস। ফাইল ছবি

নোবেল বিজয়ী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে হয়রানি ও ভয় দেখাতে তার বিরুদ্ধে শ্রম আইনের অপব্যবহার হয়ে থাকতে পারে বলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মনে করছে।

মার্কিন স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার সোমবার এক ব্রিফিংয়ে এমন মন্তব্য করেছেন।

ব্রিফিংয়ে ড. ইউনূসের অফিস দখলের চেষ্টা চালানোর বিষয়ে মন্তব্য জানতে চাইলে মিলার বলেন, 'ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে একাধিক মামলার বিষয়ে আমরা লক্ষ্য করছি যে, শ্রম আইনের মামলার বিচার অস্বাভাবিক দ্রুত গতিতে হয়েছে।' 

'দুর্নীতি দমন কমিশন আরও মামলার চার্জশিট অনুমোদন করেছে। সারাবিশ্ব থেকে এর নিন্দা করা হয়েছে,' বলেন তিনি।

তিনি বলেন, 'অন্যান্য আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে আমরাও উদ্বিগ্ন এই ভেবে যে, শ্রম আইনের অপব্যবহার করে মামলাগুলো দিয়ে ড. ইউনূসকে হয়রানি ও  ভয় দেখানো হতে পারে।'

'আমরা উদ্বিগ্ন যে, শ্রম ও দুর্নীতিবিরোধী আইনের অপব্যবহার আইনের শাসনকে বাধাগ্রস্ত করার পাশাপাশি ভবিষ্যতে বাংলাদেশে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগকে বাধাগ্রস্ত করতে পারে,' বলেন ম্যাথিউ মিলার।

তিনি আরও বলেন, 'ড. ইউনূসের জন্য বাংলাদেশে ন্যায্য ও স্বচ্ছ আইনি প্রক্রিয়া নিশ্চিত করতে আমরা সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।'

 

Comments