বুড়িমারী এক্সপ্রেস লাইনচ্যুত, ৫ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

‘সকাল ৭টায় উদ্ধারকারী ট্রেন এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে এবং ৮টা ১০ মিনিটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।’
প্রতীকী ছবি

লালমনিরহাটের বুড়িমারী থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর বুড়িমারী এক্সপ্রেস ট্রেন পাবনার ঈশ্বরদীর মুলাডুলি স্টেশনের কাছে লাইনচ্যুত হয়েছে। ফলে, ঢাকার সঙ্গে দেশের উত্তরাঞ্চলের রেলযোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

আজ বৃহস্পতিবার বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক (পাকশী) শাহ সুফী নুর মোহাম্মদ জানান, ট্রেনের একটি বগির দুটি চাকা লাইনচ্যুত হয়। উদ্ধার কাজ শেষ হওয়ার পর সকাল ৮টা ১০ মিনিট থেকে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

শাহ সুফী নুর মোহাম্মদ বলেন, 'বুড়িমারী এক্সপ্রেস মুলাডুলি স্টেশন থেকে প্রায় ২ কিলোমিটার যাওয়ার পর ট্রেনের একটি শোভন চেয়ার কোচের দুটি চাকা লাইনচ্যূত হয়। এ ঘটনা ঘটে ভোররাত ৩টায়।'

তিনি বলেন, 'সকাল ৭টায় উদ্ধারকারী ট্রেন এসে উদ্ধার কাজ শুরু করে এবং ৮টা ১০ মিনিটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।'

প্রায় পাঁচ ঘণ্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় এর প্রভাব পড়ছে এই পথে চলাচলকারী অন্যান্য ট্রেনের ওপর। পদ্মা, লালমনি, পঞ্চগড়, চিত্রা, নীলসাগর, একতা, রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনগুলোর চলাচল বিলম্বিত হচ্ছে।

ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনায় পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের পরিবহন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেনকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য দুই সদস্য হচ্ছেন—পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের যান্ত্রিক প্রকৌশলী (ক্যারেজ) মো. মোমতাজুল ইসলাম এবং বিভাগীয় প্রকৌশলী-২ বীরবল মন্ডল।

আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত কমিটিকে এই তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

Comments