৭ দিনেও নৌ যোগাযোগ নেই, সেন্টমার্টিনে ফুরিয়ে আসছে চালের মজুদ

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস আগেই শেষ, দ্রব্যমূল্য বেড়ে বহুগুণ
টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন দ্বীপে চলাচলকারী পর্যটকবাহী জাহাজ। স্টার ফাইল ছবি

সাত দিন পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত সেন্টমার্টিনের সঙ্গে দেশের মূল ভূখণ্ড টেকনাফের নৌ যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।

এতে দ্বীপের বাসিন্দারা তীব্র খাদ্য সংকটে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান। 

আজ বুধবার তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'সেন্টমার্টিন দ্বীপে যে চাল আছে তাতে বড়জোর দু-এক দিন চলতে পারে।'

মুজিবুর রহমান বলেন, 'সবজিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস আগেই শেষ হয়ে গেছে। দ্রব্যমূল্য বেড়ে গেছে বহুগুণ। এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে দ্বীপবাসীর খাদ্য সংকট আরও চরমে পৌঁছাবে।'

প্রশাসনের কাছে নাফ নদীর মোহনায় টহল বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার এই রুটে চলাচলকারী একাধিক ট্রলার লক্ষ্য করে মিয়ানমার থেকে গুলি চালানো হয়। নাফ নদীর মোহনায় এই ঘটনাগুলো ঘটে। এরপর থেকে সেন্টমার্টিনের পথে কোনো নৌযান ছেড়ে যায়নি।

সর্বশেষ মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশি স্পিডবোট লক্ষ্য করে মিয়ানমার থেকে গুলি চালানো হয়েছে। মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) নাকি বিদ্রোহী আরাকান আর্মি গুলি চালিয়েছে তা কেউ নিশ্চিত করতে পারেনি।

 

Comments