রাজনীতি

বরগুনার সাবেক এমপি মনির গাড়ি বহরে ছাত্রলীগের হামলা, বিএনপির অর্ধশত নেতা-কর্মী আহত

বরগুনার পাথরঘাটায় বরগুনা-২ আসনের বিএনপি সমর্থিত সাবেক সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম মনির গাড়ি বহরে হামলা করেছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।
বরগুনার পাথরঘাটায় বরগুনা-২ আসনের বিএনপি সমর্থিত সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম মনির গাড়ি বহরে হামলা করেছে ছাত্রলীগ। ছবি: এস দিলীপ রায়/স্টার

বরগুনার পাথরঘাটায় বরগুনা-২ আসনের বিএনপি সমর্থিত সাবেক সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম মনির গাড়ি বহরে হামলা করেছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

এতে নুরুল ইসলাম মনিসহ উপজেলা বিএনপির অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন। 

আজ রোববার দীর্ঘ ১৬ বছর পর নিজ গ্রাম বরগুনার পাথরঘটায় ফিরছিলেন তিনি। বিকেল ৪ টার দিকে পাথরঘাটার নাচনাপাড়া গ্রামে পৌছানোর পর এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে উপজেলাজুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পাথরঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাশার বলেন, 'বিশৃঙ্খলা এড়াতে উপজেলাজুড়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়াও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে উভয় গ্রুপকেই কোনো কর্মসূচি না করার জন্য বলা হয়েছে।'

পুলিশ জানায়, সম্প্রতি তেল গ্যাস ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশের ডাক দেয় পাথরঘাটা উপজেলা বিএনপি।

আগামীকাল ৫ সেপ্টেম্বর এ কর্মসূচি পালনের কথা রয়েছে। এতে যোগ দিতে ১৬ বছর পর ঢাকা থেকে গাড়ি বহর নিয়ে নিজ গ্রাম পাথরঘাটার নাচনাপাড়ার উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি নেতা নুর ইসলাম মনি। তার গাড়ি বহর নাচনাপাড়া প্রবেশ করা মাত্রই হামলা চালায় স্থানীয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকমীরা। 

এতে নুর ইসলাম মনি, উপজেলা বিএনপির আহ্ববায়ক চৌধুরী মো. ফারুকসহ অর্ধশত নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। 

এসময় হামলাকারীরা কয়েকটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। 

জানতে চাইলে বরগুনা জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট তারিকুজ্জামান টিটু দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ঢাকা থেকে গাড়ি বহর নিয়ে পাথরঘাটার নাচনেপাড়া এলাকায় তার নিজ বাড়িতে যাবার পথে হামলা চালায় ছাত্রলীগ-যুবলীগ। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও পাথরঘাটা থানা ওসি ছাত্রলীগ-যুবলীগকে সংঘর্ষের জড়াতে বাধা দিলেও তারা হামলা চালায়। এতে সাবেক এমপি নুরুল ইসলাম মনি ও উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক চৌধুরী মো. ফারুকসহ ৫০ নেতাকর্মী আহত হন।'

তবে হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে পাথরঘাটা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ওয়ালিদ মক্কী বলেন, 'সারাদেশে বিএনপি-জামায়াত সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে পাথরঘাটা উপজেলা ছাত্রলীগ সোমবার বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দিয়েছে। সেখানে অন্য কোনো দলের কর্মসূচি আছে কিনা তা আমাদের জানা নেই। কেউ যদি পাথরঘাটায় নৈরাজ্য বা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তিমূলক কোনো বক্তব্য দেয় তাহলে তা কঠোরভাবে পাথরঘাটা উপজেলা ছাত্রলীগ প্রতিহত করবে।'

Comments