‘যাদের শীর্ষ নেতা মুচলেকা দিয়ে বাইরে চলে যায়, তাদের প্রতি জনগণের আস্থা নেই’

আওয়ামী লীগ দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল এবং বিএনপির পিপীলিকার মতো জোট ভাঙা নিয়ে তাদের কোনো মাথাব্যথা নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।  
মাহবুব-উল আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ। ছবি: সংগৃহীত

আওয়ামী লীগ দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল এবং বিএনপির পিপীলিকার মতো জোট ভাঙা নিয়ে তাদের কোনো মাথাব্যথা নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।  

আজ সোমবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

সমাবেশে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, 'আজ এখানে বক্তব্য দিতে এসে মনে পড়ে যাচ্ছে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার কথা। আজ বিএনপি কথায় কথায় গণতন্ত্রের কথা বলে, মানবাধিকারের কথা বলে, আইনের শাসনের কথা বলে। কোথায় ছিল আপনাদের মানবাধিকার বোধ ২১ আগস্ট হামলার সময়।'

'বিএনপি আন্দোলন আন্দোলন খেলা শুরু করেছে' উল্লেখ করে তিনি বলেন, 'তারা চায় নির্বাচনের মাধ্যমে না, আন্দোলনের মাধ্যমে দেশকে অস্থিতিশীল করে দেশে ক্ষমতা পরিবর্তনের। কারণ তারা জানে তাদের জনপ্রিয়তা নেই। তারা জানে নির্বাচনে জয়লাভের কোনো সম্ভাবনা নেই। তাই তারা নির্বাচন চায় না।'

'যে দলের শীর্ষ নেতা মুচলেকা দিয়ে বাইরে চলে যায়, তাদের প্রতি জনগণের কোনো আস্থা নেই। তাদের ওপর বিএনপির নেতাকর্মীদেরও আস্থা নেই,' যোগ করেন তিনি।

সোমবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশ। ছবি: আশিক আব্দুল্লাহ অপু/স্টার

হানিফ বলেন, 'মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন যে সরকার নাকি তাদের জোট ভাঙার চেষ্টা করছে। ফখরুল সাহেব, আওয়ামী লীগ দেশের সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক দল। আওয়ামী লীগের আপনাদের ওই পিপীলিকার মতো জোট ভাঙা নিয়ে মাথাব্যথা নেই। আপনাদের জোট এমনিতেই ভেঙে যাবে, যদি নির্বাচনে না আসেন।'

'আপনাদের দলের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে হলে আগামী নির্বাচন, যেটি সংবিধান মেনে হবে, তাতে অংশগ্রহণ করুন। আর না হয় আপনারা অস্তিত্ব সংকটে পড়বেন,' বলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'বিএনপি-জামাতকে প্রতিরোধ করতে এবং আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জয় নিশ্চিত করতে আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকুন।'

সমাবেশে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, 'পদযাত্রা করে শেখ হাসিনাকে উৎখাত করবেন, এ রকম চিন্তা মাথায় আসে কীভাবে? গণঅভ্যুত্থান করবেন, এর মানে জানেন? গণঅভ্যুত্থান একটাই হয়েছিল ৬৯ সালে, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে।'

তিনি বলেন, 'যে পথে ক্ষমতায় যেতে পারবেন, সে পথ ছেড়ে দেন। ক্ষমতায় যেতে পারবেন নির্বাচনের মাধ্যমে। নির্বাচনে আসেন, তারপর দেখেন জনগণ ভোট দেয় কি না আপনাদের। উল্টাপাল্টা রাস্তা দিয়ে ক্ষমতায় যাবেন সে উপায় নাই।'

দলের নেতাকর্মীদের প্রতি তিনি বলেন, 'আমি আপনাদের অনুরোধ করব আমরা প্রত্যেকটা নির্বাচনী এলাকা, থানা-ওয়ার্ডে এ ধরনের শান্তি সমাবেশ করতে হবে, যেন বিএনপি-জামাত অরাজকতা না করতে পারে। আগামী নির্বাচন পর্যন্ত আমাদের মাঠে থাকতে হবে।'

Comments

The Daily Star  | English

$7b pledged in foreign funds

When Bangladesh is facing a reserve squeeze, it has received fresh commitments for $7.2 billion in loans from global lenders in the first seven months of fiscal 2023-24, a fourfold increase from a year earlier.

4h ago