রাজনীতি
বাজেট প্রতিক্রিয়া

অর্থমন্ত্রী উন্নয়নের কথামালা দিয়ে বাস্তবতাকে অস্পষ্ট করে দিয়েছেন: মেনন

বাজারে মূল্য বৃদ্ধির ঘটনাগুলো ঘটছে, সেটা কীভাবে নিয়ন্ত্রণ হবে এটা খুব একটা...
প্রস্তাবিত বাজেটে সার্বিক ঘাটতি
রাশেদ খান মেনন | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

প্রস্তাবিত ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের শরিক দল বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, অর্থমন্ত্রী উন্নয়নের কথামালা দিয়ে বাস্তবতাকে অস্পষ্ট করে দিয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় গণমাধ্যমে বাজেট প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা বলেন।

মেনন বলেন, 'আমার যেটা মনে হয়েছে যে, অর্থমন্ত্রী তার উন্নয়নের কথামালা দিয়ে বর্তমান বাস্তবতাকে অস্পষ্ট করে দিয়েছেন। যে চ্যালেঞ্জগুলো আমাদের সামনে রয়েছে; বাজারে মূল্য বৃদ্ধির ঘটনাগুলো ঘটছে, সেটা কীভাবে নিয়ন্ত্রণ হবে এটা খুব একটা স্পষ্ট আকারে এসেছে বলে মনে হয়নি।'

'ফলে চ্যালেঞ্জগুলো কীভাবে মোকাবিলা হবে এটা বেশ দুস্কর ব্যাপার হয়ে গেল বলে মন হয় আমার কাছে। বিশেষ করে আইএমএফের শর্তারোপের মধ্য দিয়ে...স্থিতিশীলতা বজায় রাখার ক্ষেত্রে যে শর্তগুলো রয়েছে সেটা আমার কাছে খুব একটা স্পষ্ট হয়নি,' বলেন তিনি।

অর্থমন্ত্রী আজ ২০২৩-২৪ অর্থবছরের জন্য ৭ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করেছেন। জাতীয় সংসদে 'দেড় দশকের উন্নয়নের পর স্মার্ট বাংলাদেশের অগ্রগতি' শীর্ষক বাজেট বক্তৃতা দেন তিনি।

এটি দেশের ৫২তম, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারের ২৪তম ও অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের পঞ্চম বাজেট।

২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেটের আকার এর আগের অর্থবছরের চেয়ে ১২ দশমিক ৩৪ শতাংশ বড়। বাজেটটি ৫০ লাখ ৬ হাজার ৬৭২ কোটি টাকার প্রাক্কলিত জিডিপির ১৫ দশমিক ২১ শতাংশ।

এবারের প্রস্তাবিত বাজেটে সার্বিক ঘাটতি ২ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা, যা জিডিপির ৫ দশমিক ২ শতাংশ। ঘাটতি মেটাতে সরকার ব্যাংকসহ অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা এবং বিদেশি উৎস থেকে ১ লাখ ১১ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার পরিকল্পনা করেছে।

প্রস্তাবিত বাজেটে সরকার ৫ লাখ কোটি টাকা রাজস্ব সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে, যা গত অর্থবছরের তুলনায় প্রায় ৬৭ হাজার কোটি টাকা বেশি।

Comments