রাজনীতি
বিএনপির কর্মসূচি

গতকাল আটক ৭০০, সংশ্লিষ্টতা না থাকলে থানা থেকেই মুক্তি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

এখন সব জায়গায় সিসিটিভি ক্যামেরা রয়েছে, এটারও আমরা সাহায্য নিচ্ছি।
গতকাল আটক ৭০০, সংশ্লিষ্টতা না থাকলে থানা থেকেই মুক্তি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল | ছবি: টেলিভিশন থেকে নেওয়া

রাজধানী ঢাকার প্রবেশপথগুলোতে বিএনপির অবস্থান কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে গতকাল সহিংসতার ঘটনায় ৭ শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি আরও জানান, এদের মধ্যে যাদের সংশ্লিষ্ট থাকবে না, তাদের থানা থেকেই ছেড়ে দেওয়া হবে।

আজ রোববার দুপুরে সচিবালয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে ইলেকশন মনিটরিং ফোরামের আমন্ত্রণে ঢাকায় সফররত আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক দলের সঙ্গে তিনি বৈঠক করেন।

গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'এ দেশে একজন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবে ক্রমাগতভাবে, তারা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করবে সেটা যেমন কাম্য নয়, তেমন এখানে ভায়োলেন্স করবে এটা এ দেশের জনগণের কাম্য নয়। আমাদের পুলিশ দক্ষ ও পেশাদার। আমাদের আনসার বাহিনী পুলিশকে সহযোগিতার জন্য তৈরি আছে। বিজিবি-কোস্টগার্ড রয়েছে।'

'আমি মনে করি, তারা ইলেকশনের দিন ভায়োলেন্স করবে...১৩-১৪ তে দেখেছেন কী ধরনের অগ্নি সন্ত্রাস শুরু করেছিল, জ্বালাও-পোড়াও শুরু করেছিল। নিরীহ মানুষকে পুড়িয়ে মেরেছে এবং গরু-ছাগলও বাদ পড়েনি। গাড়ি-ঘোড়া, মানুষের বাড়ি-ঘর পুড়িয়ে তারা জনবিচ্ছিন্ন হয়েছে। তারা যদি এই কাজটি আবারো করে—তারা জনবিচ্ছিন্ন হবে। দেশের জনগণ আর কোনো দিন তাদের সমর্থন করবে না,' বলেন তিনি।

অগ্নি সন্ত্রাস-সহিংসতায় জড়িত কত জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'ইতোমধ্যে ৭০০ এর বেশি হাতেনাতে আমরা ধরেছি। আমাদের পুলিশ হাতেনাতে ধরেছে। আগুন ধরিয়ে দিতে যারা গিয়েছিল তাদেরও ধরা হয়েছে। এখন সব জায়গায় সিসিটিভি ক্যামেরা রয়েছে, এটারও আমরা সাহায্য নিচ্ছি। জনগণও এ ধরনের দুষ্কৃতিকারীদের ধরিয়ে দিচ্ছে। অনেক সময় পুলিশের নজর এড়িয়ে গেলেও জনগণ ধরে আমাদের সামনে এনে দিচ্ছে, তাদেরও আমরা ধরছি। আমরা কাউকে ছাড় দিচ্ছি না।'

'গতকাল ৭০০ এর বেশি গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এর মধ্যে যাদের সংশ্লিষ্টতা থাকবে না তাদের থানা থেকেই ছেড়ে দেওয়া হবে। আমি জানি না তার সংখ্যা এখন কত আছে, কত জনকে কোর্টে পাঠানো হয়েছে,' আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন আসাদুজ্জামান খান কামাল।

 

Comments